• সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:১১ পূর্বাহ্ন




লেবাননে জমানো টাকা তুলতে এবার অস্ত্র হাতে ব্যাংকে এক নারী

/ ৪৪ বার পঠিত
আপডেট: বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২
জমানো টাকা তুলতে এবার অস্ত্র হাতে

লেবানন তাদের আধুনিক ইতিহাসে সবচেয়ে খারাপ অর্থনৈতিক সংকটে ভুগছে। দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক নাগরিকদের জমাকৃত সঞ্চয় আটকে দিয়েছে। বৈদেশিক মুদ্রা উত্তোলনের ব্যাপারেও কঠোরতা ঘোষণা করা হয়েছে। ২০১৯ সাল থেকে চলছে এ অবস্থা। ব্যাংকে নিজেদের জমাকৃত অর্থ উত্তোলনে তাই নতুন পথ বেছে নিচ্ছেন লেবানিজরা। আজ বুধবারই যেমন লেবাননে বৈরুতের একটি ব্যাংকে জোরপূর্বক অস্ত্র নিয়ে প্রবেশ করেন এক নারী। এরপর অস্ত্রের মুখে ব্যাংক কর্মকর্তাদের তিনি হাজারো ডলার হস্তান্তর করতে বাধ্য করেছেন।

আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, লেবাননের বিএলওএম ব্যাংকের একটি শাখায় ওই নারী অস্ত্র নিয়ে প্রবেশ করেন। এরপর হাসপাতালে ক্যান্সার আক্রান্ত বোনের চিকিৎসার জন্য তিনি তার সঞ্চিত অর্থ ফেরত দেওয়ার দাবি জানান। এই ঘটনার পরপরই ‘ব্যাংকমেড’ নামে লেবাননের একটি ব্যাংকের শাখায় একজন পুরুষ অস্ত্রধারী ঢুকে তার আটকে থাকা অর্থ ফেরত দিতে বাধ্য করেন।

এই দুই ঘটনার আগে গত আগস্ট মাসে সঞ্চিত অর্থ ফেরত পেতে এক ব্যক্তি রাইফেল হাতে ফেডারেল ব্যাংক অব লেবাননের একটি শাখায় ঢুকে পড়েন। তার সঞ্চিত অর্থ দিতে অস্বীকৃতি জানানোয় অস্ত্রের মুখে ব্যাংক কমকর্তাদের জিম্মি করেন তিনি। এরপর অবশ্য বাবার চিকিৎসার জন্য এমন কাণ্ড ঘটানো ওই ব্যক্তি তার জমানো ২ লাখ ডলারের মধ্যে ৩০ হাজার ডলার ফেরত পান।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবর অনুসারে, অর্থনৈতিক সংকটে ভোগা লেবাননের ব্যাংকগুলোতে তারল্য সংকট দেখা দিয়েছে। মার্কিন ডলারের বিপরীতে লেবানিজ পাউন্ডের মূল্য ৯০ শতাংশেরও বেশি কমে গেছে। জনসংখ্যার তিন-চতুর্থাংশ দারিদ্র্যে নিমজ্জিত হয়েছে। এ কারণেই দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক নাগরিকদের জমাকৃত সঞ্চয় আটকে দিয়েছে।





আরো পড়ুন