• রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১০:৩৫ পূর্বাহ্ন
171764904_843966756543169_3638091190458102178_n

চোর সানজিদা ও তার গডফাদার জাফর জমাদ্দারকে খুঁজছে পুলিশ

ডেস্ক রিপোর্ট / ২৩৮৯ বার পঠিত
আপডেট: রবিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
জাফর জমাদ্দারকে খুঁজছে পুলিশ

বিএমএসএফ এর রামগড় উৎসব ভুন্ডুল করতে বিশেষ এসাইনমেন্ট নিয়ে হাজির হয়েছিলেন সানজিদা আক্তার। তাকে নির্দেশ দিয়েছিলেন জাফর জমাদ্দার। কিন্তু সানজিদা রামগড় উৎসবে ঢুকতে না পারায় আরেক অপকর্ম সাধনে তৎপর হয়ে উঠেন। তিনি সাময়িক সময়ের জন্য বিশ্রাম নিতে ঢুকে পড়েন বিএমএসএফ কোষাধ্যক্ষ শারমিন সুলতানা মিতুর কক্ষে। মিতুর অনুপস্থিতিতে তার ভ্যানিটি ব্যাগ হাতড়িয়ে সানজিদা ও তারই এক নারী সহযোগী একটি মোবাইল ও ১৭ হাজার টাকা ও দুটি পেইনড্রাইভ হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যেতে উদ্যত হয়। এসময় বিষয়টি টের পেয়ে সেখানে জড়ো থাকা লোকজন সানজিদাদের গাড়ি আটকে রাখে। এসময় মিতুসহ অন্যরা জিজ্ঞাসাবাদ করলে সানজিদা চুরিকৃত মোবাইল ফোনটি ফেরত দেন এবং পেইনড্রাইভ ও টাকাগুলো ফেরত দেয়ার জন্য আধা ঘন্টা সময় প্রার্থনা করেন। একপর্যায়ে কতিপয় সহযোগীর সহায়তায় সানজিদা ও তার অন্যতম সহযোগী রামগড় থেকে পালিয়ে যান।

এ ব্যাপারে টানা ২৪ ঘন্টা অপেক্ষা করেও সানজিদার পক্ষ থেকে আর কোনো সদুত্তোর না পাওয়ায় কিংবা চুরি করা টাকা ও পেইনড্রাইভ ফেরত না দেয়ায় শারমিন সুলতানা মিতু নিজে বাদী হয়ে রামগড় থানায় এজাহার দাখিল করেন। রামগড় থানা পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করাসহ বিস্তর তদন্ত শেষে গত শনিবার রাতে মামলা রেকর্ড করেছেন। ইতিমধ্যেই চোর সানজিদা ও তার গডফাদারের খোঁজে পুলিশ মাঠে নেমেছে। ওসি রামগড় বলেছেন, চিহ্নিত চোর সানজিদা ও তার সহযোগিকে গডফাদারসহ গ্রেফতার করা হবে। তারা পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে দেশের কোথাও লুকিয়ে থাকার সুযোগ পাবেন না। তিনি আরো বলেন, কোনো প্রভাব বা তদবির খাটানোর চেষ্টা করা হলে তাদেরকেও মামলায় সহযোগী হিসেবে ৩৪ ধারায় সোপর্দ্দ করা হবে।


আরো পড়ুন