• সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ১২:৩৭ অপরাহ্ন

টেকনাফে ১৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৮টি উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ।

Reporter Name / ১২৫ Time View
Update : শুক্রবার, ২ অক্টোবর, ২০২০
অবৈধ শিশু জন্মের ফ্যাক্টরি গুলো বন্ধ করা জরুরি। প্রশাসনকে বলছি ফ্যাক্টরি বন্ধ না করে প্রোডাক্ট এর পেছনে ডাস্টবিনে ঘুরে লাভ নেই। আগে ফ্যাক্টরি বন্ধ করুন ডাস্টবিনে প্রোডাক্ট সাপ্লাই বন্ধ হয়ে যাবে।
অবৈধ শিশু জন্মের ফ্যাক্টরি গুলো বন্ধ করা জরুরি। প্রশাসনকে বলছি ফ্যাক্টরি বন্ধ না করে প্রোডাক্ট এর পেছনে ডাস্টবিনে ঘুরে লাভ নেই। আগে ফ্যাক্টরি বন্ধ করুন ডাস্টবিনে প্রোডাক্ট সাপ্লাই বন্ধ হয়ে যাবে।

এম এ হাসান, টেকনাফঃ- টেকনাফ পৌরসভার পুরাতন বাস স্টেশন মোড়ে এমজিএসপি’র প্রকল্পের আওতায় বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে কায়ুকখালী খাল হতে হেচ্ছার খাল পর্যন্ত টেকনাফ-কক্সবাজার মহা সড়কের উভয় পাশে প্রাথমিক ড্রেন ফুটপাত, একাধিক আরসিসি রাস্তা সংস্কারের কাজ, সড়ক বাতিসহ বিভিন্ন এলাকার উন্নয়ন প্রায় ১৮ কোটি টাকা ব্যয়ে এ ১৮টি উন্নয়ন মূলক কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়।
বৃহস্পতিবার (১ অক্টোম্বর) বেলা ১১ টার দিকে টেকনাফ পুরাতন বাস ষ্টেশন চত্বরে প্রকল্পের নামফলক উম্মোচন করে কাজের শুভ সূচনা করেন কক্সবাজার-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) আসনের সংসদ সদস্য শাহীন আক্তার বদি, উদ্বোধন উপলক্ষে পৌর মেয়র হাজ্বী মোহাম্মদ ইসলামের সভাপতিত্বে ও পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলম বাহাদুরের পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) আসনের সংসদ সদস্য শাহীন আক্তার বদি, বিশেষ অতিথি সাবেক এমপি আব্দুর রহমান বদি, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আলম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবুল মনছুর, এমজিএসপির উপ-প্রকল্প অফিসার মোঃ মনজুর আলী, ঢাকা সিনিয়র মিউনিমিসপাল ইঞ্জিনিয়ার কনসালটেন্ট আশফাকুল জলিল, কক্সবাজার সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী পিন্টু চাকমা, ঢাকা সহকারি মিউনিসিপাল ইঞ্জিনিয়ার কনসালটেন্ট মোঃ রফিকুল ইসলাম, পৌরসভার প্যানেল মেয়র-১ মৌলানা মুজিবুর রহমান, প্যানেল মেয়র-২ মোঃ আব্দুল্লাহ মনির, প্যানেল মেয়র-৩ কোহিনুর আক্তার, কাউন্সিলর আবু হারেছ, এহেতেমুল হক বাহাদুর, হোসেন আহমদ, রেজাউল করিম মানিক, মনিরুজ্জমান প্রমূখ।
প্রধান অতিথি শাহীন আক্তার বদি বলেন- টেকনাফ পৌরসভায়কে আধুনিকমানের পৌরসভায় রুপান্তরিত করা হবে। এ পৌরসভা প্রথম শ্রেণীতে উন্নতি হয়েছে। তাই সকলকে উন্নয়ন কাজে সহযোগিতা করতে হবে। আপনাদের কাছে যে উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম সেগুলো বাস্তাবায়ন হচ্ছে।’ জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ভবিষ্যতে আরো ব্যাপক উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়িত হবে। শহরের রাস্তাঘাটের সুবিধাতে নাগরিকগনকে বিল্ডিং কোড মেনে পানি পয়ঃনিস্কাশনের পর্যাপ্ত জায়গা রেখে বিল্ডিং বা স্থাপনা নির্মাণ করতে হবে।
টেকনাফ পৌর মেয়র হাজ্বী মোহাম্মদ ইসলাম বলেন- পৌরসভার উন্নয়নে আমি পৌরবাসীর সহযোগিতা করছি। পৌরবাসীর সহযোগিতা পেলে ডিজিটাল ও পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন শহরে উন্নতি করতে পারবো। ভিত্তিপ্রস্তর শেষে দেশ জাতির কল্যাণ কামনা করে ও অত্র টেকনাফ পৌরসভার উন্নয়নের জন্য দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন মৌলানা কারী রশিদ উল্লাহ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category