• মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১১:৩৪ অপরাহ্ন




ছাত্রলীগের নতুন নেতৃত্বকে আগাম শুভেচ্ছা জানালেন জয়

/ ২৫ বার পঠিত
আপডেট: বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২২

উপমহাদেশের প্রাচীনতম ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৩০তম সম্মেলন চলছে। এই সম্মেলনের মাধ্যমেই নির্ধারণ হবে সংগঠনের পরবর্তী নেতৃত্ব। এদিকে নতুন নেতৃত্বকে আগাম শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ছাত্রলীগের বিদায়ী সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়।

মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ছাত্রলীগের ৩০তম সম্মেলন বিদায়ী বক্তব্যে এই শুভেচ্ছা জানান তিনি। আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, আজকের এই ৩০তম জাতীয় সম্মেলনের মাধ্যমে যেই নতুন নেতৃত্বের সূচনা হবে। সেই নতুন নেতৃত্বকে আমি আগাম অভিনন্দন জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশনায় পরিচালিত হয়। ছাত্রলীগ সবসময় একটি কথা বিশ্বাস করে, জাতির পিতা ১৯৪৮ সালে যেই মূল লক্ষ্য নিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। সেই শিক্ষা-শান্তি-প্রগতির পতাকাকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার জন্য, তারই সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সেই এগিয়ে যাওয়ার পথে স্বপ্নের সাহসী সারথি হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে।

এর আগে, মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ ছাত্রলীগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা।


উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের মে মাসে ছাত্রলীগের ২৯তম কেন্দ্রীয় সম্মেলনে সংগঠনের সভাপতি নির্বাচিত হন রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক হন গোলাম রাব্বানী। তবে মাত্র এক বছরের মাথায় অনিয়ম ও চাঁদাবাজির অভিযোগে তাদের নেতৃত্ব থেকে অপসারণ করা হয়। এরপর গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, এক নম্বর সহসভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়কে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এবং এক নম্বর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যকে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেওয়া হয়। তিন মাস পর ২০২০ সালের ৪ জানুয়ারি ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে জয় ও লেখককে ভারমুক্ত করে পূর্ণাঙ্গ দায়িত্ব দেওয়া হয়।





আরো পড়ুন