• সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৭:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
সংবাদ সংগ্রহকালে সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনায় বিএমএসএফ’র নিন্দা ও প্রতিবাদ পাবনা- সিরাজগঞ্জ রোড এর উল্লাপাড়া উপজেলার বোয়ালিয়া নামক স্থানে এক সড়ক দুর্ঘটনায় ১ সেনা সদস্য নিহত রায়পুরে অজ্ঞাত কিশোরের লাশ উদ্ধার! ত্রিশালে যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত রোপা আমন চাষে কৃষকের কপালে দুশ্চিন্তার ভাঁজ বিএফইউজে নির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে বিএমএসএফ’র অভিনন্দন ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলা বিএমএসএফ এর সভাপতি মিজান সা: সম্পাদক রায়হান কমিটি ঘোষণা স্কুলছাত্রী অপহরণের ঘটনায় শিক্ষক গ্রেফতার পূজামণ্ডপে হামলায় আমাদের নেতাকর্মী জড়িত নয় : ভিপি নুরুল হক নুর ১৫-১৮ বছরের অবিবাহিত মেয়ে থাকলে প্রতি মাসে পাবেন ৩০ কেজি চাল

ফেসবুকের কালো তালিকায় ১ বাংলাদেশিসহ দেশের ৬ জঙ্গি সংগঠন

অনলাইন ডেস্ক / ২৮ Time View
Update : বুধবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২১

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের বিরুদ্ধে দীর্ঘ দীনের অভিযোগ ছিলো সন্ত্রাসী, জঙ্গি সংগঠনগুলোকে অপপ্রচার চালাতে সহায়তার।  সেই অভিযোগ থেকে রেহাই পেতে জনপ্রিয় এই সামাজিক মাধ্যম বিশ্বের বিভিন্ন দেশের চার হাজারের বেশি সন্ত্রাসী-জঙ্গি সংগঠন এবং ব্যক্তিকে গোপন কালো তালিকাভুক্ত করেছে; যারা অনলাইন-অফলাইনে সহিংসতার বিস্তার করেন। এই তালিকায় বাংলাদেশের এক ব্যক্তি ও ছয় জঙ্গি সংগঠনের নাম রয়েছে।

ফেসবুকের ‘ডেঞ্জারাস ইন্ডিভিজুয়ালস অ্যান্ড অর্গানাইজেশন্স’ পলিসির আওতায় গোপন এই কালো তালিকার একটি সংস্করণ প্রকাশ করেছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্টারসেপ্ট।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের জঙ্গি সংগঠন, হিংসা-বিদ্বেষ সহিংসতার প্রচারকারী গোষ্ঠী এবং রাজনীতিবিদেরও এই তালিকায় যুক্ত করেছে ফেসবুক। তালিকায় বাংলাদেশের যে ছয় জঙ্গি সংগঠনের নাম রয়েছে সেগুলো হলো—

১. আল মুরসালাত মিডিয়া

২. ইসলামিক স্টেট বাংলাদেশ

৩. হরকাত উল-জিহাদ-ই-ইসলামী বাংলাদেশ

৪. আনসারুল্লাহ বাংলা টিম

৫. জামায়াত উল মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি)

৬. সাহাম আল-হিন্দ মিডিয়া

ফেসবুক বলছে, সাহাম আল-হিন্দ মিডিয়ার সঙ্গে জামায়াত উল মুজাহিদিন বাংলাদেশের এবং আল মুরসালাত মিডিয়ার সঙ্গে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের সম্পর্ক রয়েছে।

ফেসবুকের বিপজ্জনক ব্যক্তির তালিকায় এক বাংলাদেশির নামও রয়েছে। তরিকুল ইসলাম নামে ওই বাংলাদেশির সঙ্গে জামায়াত উল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) সম্পর্ক আছে বলে জানিয়েছে ফেসবুক। তবে ওই ব্যক্তির ব্যাপারে বিস্তারিত আর কোনও তথ্য জানানো হয়নি।

দ্য ইন্টারসেপ্ট ফেসবুকের গোপন কালো তালিকাভুক্ত সব সংগঠন এবং ব্যক্তির নাম প্রকাশ করেছে। এর মধ্যে বিভিন্ন দেশে পরিচালিত দাতব্য সংস্থা, হাসপাতাল, লেখক, কয়েকশ মিউজিক ভিডিও, রাজনীতিক এবং মৃত ঐতিহাসিক ব্যক্তির নামও রয়েছে। তালিকায় ঠাঁই পাওয়া সব সংগঠন এবং ব্যক্তি বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের এই প্ল্যাটফর্মে নিষিদ্ধ।

যেসব ব্যবহারকারী ফেসবুকে এসব গোষ্ঠী বা ব্যক্তিকে নিয়ে আলোচনা করেন; তাদের ফেসবুকের ডিআইও নীতিমালা অনুযায়ী, তিন-স্তরের শাস্তির আওতায় আনে এই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম।

বাংলাদেশের যেসব সংগঠন এবং ব্যক্তির নাম ফেসবুকের গোপন কালো তালিকায় রয়েছে; তাদেরকে নিয়ে ফেসবুকে আলোচনা করা হলে চরম শাস্তি হতে পারে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category