ফেনী-নোয়াখালী সড়ক চারলেনে উন্নীতকরণে ৭৪৭ কোটি টাকার প্রকল্প, অক্টোবরে কার্যাদেশ

0
60

আব্দুল ইমরানঃ ফেনী-নোয়াখালী সড়ক দুইলেন থেকে ফোরলেনে উন্নীতকরণে নেওয়া হয়েছে ৭৪৭ কোটি টাকার মেগা প্রকল্প। এরইমধ্যে শুরু হয়ে গেছে প্রকল্পের কার্যক্রম। গত ২৬ আগস্ট খোলা হয়েছে দরপত্র। চলতি বছরের অক্টোবরের মধ্যে কার্যাদেশ দেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

ফেনী সড়ক বিভাগ সূত্রে জানা যায়, ফেনী-নোয়াখালী জাতীয় মহাসড়ক দুইলেন থেকে ফোরলেনে উন্নীতকরণে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় ৭৪৭ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। এই প্রকল্পের আওতায় ফেনীর মহিপাল থেকে নোয়াখালীর সেবারহাট পূর্ব বাজার পর্যন্ত ফেনী অংশের ১৭ কিলোমিটার এবং সেবারহাট থেকে নোয়াখালীর চৌমুহনী পূর্ব বাজার পর্যন্ত নোয়াখালী অংশের ১২.২৮ কিলোমিটার সড়ক দুইলেন থেকে ফোরলেনে উন্নীত করা হবে। ফেনী অংশের ১৭ কিলোমিটারের জন্য প্রকল্প ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৯৮ কোটি ৮৩ লাখ টাকা।

ফেনী সড়ক বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী (এসডিও) মাকসুদুর রহমান জানান, ফোরলেন প্রকল্পে সড়কের প্রশস্ততা হবে ২০ মিটার এবং মাঝখানে দেড় মিটারের সড়ক বিভাজক থাকবে। এছাড়াও ফেনী অংশে দুটি সেতু, নয়টি কালভার্ট, দুটি বাস-বে, একটি ফুটওভারব্রিজ ও একটি ইন্টারসেকশন (গোলচত্বর) নির্মাণ করা হবে।

সেতু দুটির একটি মাতুভূঞা সেতু, আরেকটি সিলোনিয়া সেতু। এছাড়া ইন্টারসেকশন, ফুটওভারব্রিজ ও দুটি বাস-বে’র একটি নির্মাণ করা হবে দাগনভূঞা বাজার অংশে।
ফেনী সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সৈয়দ হালিমুর রহমান জানান, প্রকল্পের ঠিকাদার নিয়োগে এরইমধ্যে দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে এবং গত ২৬ আগস্ট দরপত্র খোলা হয়েছে। দরপত্র মূল্যায়ন করে ঠিকাদার নিয়োগের পর চলতি বছরের অক্টোবরের শেষের দিকে প্রকল্পের কাজ শুরু কার্যাদেশ দেওয়া হতে পারে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সড়কটি ফোরলেনে উন্নীত হলে যোগাযোগ ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে এক নতুন দিগন্তের দ্বার উন্মোচিত হবে, বিশেষ করে বন্দর নগরী চট্টগ্রামের সাথে দেশের দক্ষিন-পশ্চিমাঞ্চলের ২১টি জেলার যাতায়াতের দূরত্ব অর্ধেক এবং কোনো কোনো জেলার ক্ষেত্রে তিনশ কিলোমিটারের বেশি কমে আসবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here