• শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ০৭:৩৪ পূর্বাহ্ন

বরিশালের কৃতি সন্তান মিথ্যা মামলার শিকার, ছাত্রনেতা ভিপি মঈন তুষার।

Reporter Name / ৮১ Time View
Update : সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০
বরিশালের কৃতি সন্তান মিথ্যা মামলার শিকার, ছাত্রনেতা ভিপি মঈন তুষার।
বরিশালের কৃতি সন্তান মিথ্যা মামলার শিকার, ছাত্রনেতা ভিপি মঈন তুষার।

সুমন খান

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আস্থাভাজন ও সাবেক মেয়র শওকত হোসেন হিরনের  এর অনুসারী। দৈনিক বাংলাদেশ বানী পত্রিকায়  ও সম্পাদক ও প্রকাশক, ছাত্রনেতা বরিশাল বিএম কলেজ আলহাজ্ব ভিপি মোঃ মঈন তুষার।
দক্ষিন বাংলার সর্বকালের সর্বশেষ্ট বিদ্যাপীঠ, সত্য প্রেম পবিত্রতার ধারক ও বাহক বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন বিশ্ববিদ্যালয় (বি.এম.কলেজ) এর জনপ্রিয় সফল ভিপি আলহাজ্ব মোঃ মঈন তুষার হেয়পন্ন ভাবে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলার শিকার হয়েছেন।

 


ভিপি মোঃ মঈন তুষার ছাত্রজীবনে তিনি ছিলেন মেধাবী ও পরিশ্রমী ছাত্রনেতা। বিএনপি জামাত শিবিরের হাত থেকে দক্ষতার সাথে তার বিশাল নেতাকর্মী বাহিনী নিয়ে ক্যাম্পাসকে তৈরী করেছিল ছাত্রলীগের ঘাটিতে। কিন্তু তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার কারনে ব্যাপক সমালেচনার সৃষ্টি হয়েছে বরিশাল আওয়ামী রাজনীতিতে।

ভিপি মঈন তুষার সাবেক মেয়র হিরনের বিস্বস্থ ছাত্রনেতা ছিলেন। মেয়র হিরনের মৃত্যুর পর থেকে বিভিন্নভাবে ভিপি তুষারকে হেয়পন্ন করার চেষ্টা করে আসছে একদল কুচক্রী মহল। এমনকি লোভনীয় অফার প্রদান করা হয় ভিপি তুষারকে তার নেতৃত্ব পরিবর্তনের জন্য। কিন্তু তিনি সেটা গ্রাহন করেননি যার ফলে একের পর এক প্রতিহিংসার শিকার হন ভিপি মঈন তুষার। তারপরও তিনি হিরনের আদর্শ নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। তাকে দাবিয়ে রাখার জন্য এরকম মিথ্যা মামলা অনেকের ধারনা।

 

ভিপি মঈন তুষারের ছাত্ররাজনীতির সুনাম ছড়িয়ে পরে গোটা বরিশালবাসীর দ্বারপ্রান্তে, একপর্যার তৎকালিন বরিশাল সিটি মেয়র ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব শওকত হোসেন হিরনের বলিষ্ঠ নেতৃত্ব নিয়ে এগিয়ে যায় বি এম কলেজ ছাত্রলীগকে সাথে নিয়ে ভিপি মঈন তুষার। মেয়র হিরনের পর তাকে থামিয়ে দেবার জন্য একটা মহল কাজ করে আসছে।

 

 

বি এম কলেজ ক্যাম্পাস থেকে সাবেক ভিপি সেন্টুর ক্যাডার বাহিনী, জামাত শিবিরকে পুরোপুরি নিশ্চিহ্ন করে জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌছান বিএম কলেজের ভিপি মোঃ মঈন তুষার।।

 

১৫ই আগষ্ট জাতীয় হোক দিবসে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মিথ্য জন্মদিন পালনের বিরুদ্ধে বরিশালে বিএনপির অর্ধশত নেতাসহ সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদে জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা করে দেশজুরে আলোচনা ও প্রশংসার কেন্দ্রবিন্দু হন উচ্চমহলে ভিপি মঈন তুষার। বিএম কলেজ ক্যাম্পাস থেকে মাদক ও ইভটিজিংমুক্ত করে ক্যাম্পাসকে গড়ে তুলেছিল শিক্ষাউপযোগী পরিবেশ।

 

যতদূর জানা যায়, ভিপি তুষার সাধারন ছাত্রছাত্রীদের বই কেনা, পরিক্ষার ফি প্রদান, সেশন ফি কমানো, হোস্টেলে থাকার ব্যাবস্থা করা, কোনো বিপদে ছাত্রছাত্রীর ফোন পেলে তাৎক্ষনিক ক্যাম্পাসে এসে ব্যাবস্থা গ্রাহন করা, সকল ছাত্রছাত্রীদের সাথে বন্ধুসুলভ আচরনের মাধ্যমে হয়ে উঠেছিল ক্যাম্পাসের সর্বকালের সফল জনপ্রিয় ভিপি হিসাবে মোঃ মঈন তুষার। ছাত্রছাত্রী থেকে শুরু করে শিক্ষক পর্যন্ত ক্যাম্পাসের আস্থা ভারষা আর ভালবাসার আরেক নাম ছিল ভিপি মঈন তুষার। এরকম একজন মহান নেতার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার বিসয়টি ভালভাবে নিচ্ছে না সাধারন ছাত্রছাত্রীরা।

 

বর্তমানে ভিপি মঈন তুষার ছাত্রসেবা থেকে শুরু করে নিজেকে নিয়োজিত করেছেন জনসেবায়, অসহায়দের পাসে সবসময় সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেন ভিপি মঈন তুষার। মহামারী করোনা মোকাবেলায় সরকারের পাসাপাসি নিজেস্ব অর্থায়নে প্রায় 5শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিরতন করেন গভীর রাতে ঘরে ঘরে দ্বারপ্রান্তে গিয়ে।

 


পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে প্রায় শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী উপহার পৌছেঁ দেন ভিপি মঈন তুষার। যদিও তিনি বর্তমানে রাজনীতির দিকে কিছুটা কোনঠাসা রয়েছেন, তারপরও সামার্থ অনুযায়ী বিপদে আপদে সরকারের পাসাপাসি শওকত হোসেন হিরনের আদর্শ নিয়ে বরিশাল নগরবাসীর পাসে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে যাচ্ছেন আলহাজ্ব ভিপি মোঃ মঈন তুষার। অনেকের ধারনা ভিপি তুষারকে হেয়পন্ন করার উদ্দেশ্যে মামলার নাটক সাজিয়ে তার সুনাম নষ্ট করার চেষ্টা চলছে।

 

এব্যাপারে দক্ষিন বাংলার ছাত্ররাজনীতির অহংকার, বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের কারিগর, বিএম কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সিনিয়র যুগ্ন-আহবায়ক, বিএম কলেজ ছাত্রসংসদ বাকসুর জনপ্রিয় সফল ভিপি মঈন তুষারকে রাজনীতি থেকে কোনঠোসা করে রাখা হয়েছে। তাকে একের পর এক মিথ্যা মামলার মাধ্যমে হেয়পন্ন করা হচ্ছে যার ফলে ক্ষুদ্ধ ও আতংকিত বরিশালের ত্যাগী ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।


ভিপি মঈন তুষার বলেন রাজনীতির জায়গায় থেকে আমি রাজনীতিতে কিছুটা পিছিয়ে গেছি কারন আমাকে রাজনীতি থেকে কোনঠাসা করে রাখা হয়েছে, তারপরও আমি জননেত্রী শেখ হাসিনার আদর্শ নিয়ে এগিয়ে যাবো নিজের গতিতে, আমি আমার যোগ্যতার মাপকাঠি অনুযায়ী সরকারের পাশাপাসি নিজেকে বরিশাল নগরবাসীর জনসেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে চাই বাকিটা আল্লাহ ভরষা। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন যেন সবসময় নিজেকে জনসেবায় নিয়োজিত রাখতে পারি।

 

এদিকে ভিপি মঈন তুষারের সাথে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, সাবেক শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু ও পুলিশ মহাপরিচালক বেনজির আহমেদের সাথে সুসম্পর্ক থাকার বিসয়টা অনেকে ভাল চোখে দেখছেন না, তাই বিভিন্ন ভাবে ভিপি মঈন তুষারকে হেয়পন্ন ও ইমেজ নষ্ট করার জন্য একদল কুচক্রী মহল তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। ভিপি তুষার জানান এর আগেও আমাকে একাধিক বার ষড়যন্ত্র ভাবে মিথ্যা মামলার মাধ্যমে হেয়পন্ন করে হয়রানি করেছে এবং তারপরে সেগুলো মিথ্যা প্রমানিত হয়েছে। বর্তমানে কুচক্রী মহলটি আবার আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার নাটক সাজিয়ে আমাকে হয়রানি করছে, তবে এবার বিসয়টি বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উচ্চ মহলে বিসয়টি জানানো হয়েছে। এবং বরাবরের মত এবারও আমি আইনের মাধ্যমেই এটাও যে মিথ্যা মামলা সেটা প্রমান হবে। তিনি আরও জানান বর্তমানে তিনি জরুরী প্রয়োজনে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে অবস্থান করছেন।

 

এদিকে জনপ্রিয় ছাত্রনেতা ভিপি মঈন তুষারের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার নিন্দা জানিয়েছেন বিএম কলেজ ছাত্রসংসদ বাকসুর নেতারা, বিএম কলেজ ছাত্রলীগ, মহানগর ও জেলা ছাত্রলীগের একাংশ নেতাকর্মীরা। বরিশাল জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের অধিকাংশ নেতা এর বিরুদ্ধে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category