• সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৯:২৮ পূর্বাহ্ন
Headline
জামালপুরের তিনটি পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার বিজয়! জয়পুরহাটে দ্বিতীয় বারের মতো পৌর পিতা হলেন- মেয়র মোস্তাক ২০০০ ব্যাগ রক্তদান কর্মসূচি সম্পন্ন করেছেন নেছারাবাদ   ব্লাড ডোনার্স ক্লাব কেক শুভেচ্ছা জানানো হয় শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হলো জয়পুরহাট পৌরসভা নির্বাচন”পুনরায় নির্বাচনের দাবী বিএনপির কোরআনের পাখি ইমন ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত, ব্যয়বহুল খরচ চালাতে অক্ষম, সাহায্যের আবেদন “পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়তে বিডি ক্লিন – উলানিয়া সদস্যদের ভূমিকা” বেনাপোলে সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে মানববন্ধন! সাংবাদিক হত্যা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে ২ মার্চ দেশব্যাপী কলমবিরতি ঘোষণা নওগাঁর বদলগাছীতে ছাগল কিনতে এসে গৃহবধূকে  হাত মুখ বেধে ধর্ষণের চেষ্টা ! কোম্পানিগঞ্জে মুজাক্কিরের কবর জিয়ারতে বিএমএসএফ নেতৃবৃন্দ

ফুলপুরের উন্নয়নে মধ্যভূমিতে শুধু ব্রিজ দাঁড়িয়ে আছে নেই রাস্তা ।

Reporter Name / ৫৯ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২০

তপু রায়হান রাব্বি ফুলপুর-তারাকান্দা (ময়মনসিংহ)প্রতিনিধিঃ- ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার ১নং ছনধরা ইউনিয়নে অপরিকল্পিতভাবে ব্রিজ নির্মাণ করা হলেও রাস্তা না থাকায় ৫ গ্রামের হাজারো মানুষের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে প্রতিদিন । ঘটনাস্থল থেকে দেখা যায়, ওই ইউনিয়নের বাইশকাহনিয়া খালের ওপর ব্রিজ আছে কিন্ত দু’পাশে কোনো রাস্তা নেই। ব্রিজ নির্মাণের প্রায় দেড় বছর পরও সংস্কার হয়নি সংযোগ সড়ক।
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে,২০১৮-১৯ অর্থবছরে ব্রিজ কর্মসূচির আওতায় ব্রিজটি বাস্তবায়ন হয়। প্রায় ৩৬ ফুট দীর্ঘ ও ১৪ ফুট প্রস্থ এ ব্রিজটি নির্মাণ করে। এ ব্রিজে ব্যয় হয় ২৯ লাখ টাকা। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ছিল শুভ এন্টারপ্রাইজ। রাস্তা নির্মাণ না করেই ব্রিজ নির্মাণ  করায় এটি কোনো কাজে আসছে না পথচারীদের। ব্রিজের দুপাশে রাস্তার মাটি ভরাট না করায় ব্রিজে ওঠা নামা করার মতো কোনো পরিস্থিতি নেই। ব্রিজের দু’পাশে মাটি ভরাট ও রাস্তা তৈরি করে জনগণের চলার উপযোগী করে তোলা হলে সেখানের মানুষ উপকার হত। সে খানে দূর্ভোগের শিকার হচ্ছে পথচারী ও এলাকাবাসী।
কিন্ত ব্রিজ থেকে দু’পাশের সংযোগ সড়ক অতি নীচ। তাই এ অভিশপ্ত ব্রিজের আর্তনাদ ও অভিশাপ থেকে মুক্তি চাই এ জনগণ।  স্থানীয় বাইশকাহনিয়া গ্রামের কালাম মিয়া জানান, শুকনো মৌসুমে ব্রিজের নিচ দিয়ে যাতায়াত করা যায়। কিন্তু বর্ষার সময় পানি থাকায় নৌকা দিয়ে পারাপার হতে হয় দুই পারের মানুষের । রামসোনা গ্রামের আজিজুল ইসলাম বললেন, প্রায় ২৯ লাখ টাকার ব্রিজ দাঁড়িয়ে আছে, অথচ মানুষ সে ব্রিজ ব্যবহার করতে পারছে না।
সেই ব্রিজ নির্মিত হলেও এর কোনা সুফল জনগণ পাচ্ছে না। অবিলম্বে এটি ব্যবহারের উপযোগী করার ব্যবস্থা নেওয়ার প্রয়োজন। ফুলপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসের কর্মকর্তা মোঃ সফিকুল ইসলাম সংবাদকর্মী তপু রায়হার কে জানান, উপজেলা সমম্বয় মিটিং এ আলোচনা পর্যালোচনা করে সকলের সিদ্ধান্ত মোতাবেক মাটি কাঁটা হবে। মাটি কাটা হলে স্কুলের/ ছাত্র-ছাত্রীদের যাতায়াত সু ব্যবস্থা এবং অবহেলিত মানুষের  খুবই সুবিধা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category