• রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:৪৪ অপরাহ্ন

ফেসবুক টাইমলাইনে ভুয়া প্রেস বিজ্ঞপ্তি, ছাত্রলীগ নেত্রী কাকলীর কাণ্ড!

/ ৫৩ বার পঠিত
আপডেট: রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২২

ফেসবুক টাইমলাইনে ভুয়া প্রেস বিজ্ঞপ্তির ছবি শেয়ার করে নিজেকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ‘সদস্য’ বলে প্রচার করার অভিযোগ উঠেছে এক নেত্রীর বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত ওই নেত্রী হলেন শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ছাত্রীবিষয়ক সম্পাদিকা শামসুন নাহার কাকলী।
তিনি গত বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) নিজের ফেসবুক টাইমলাইনে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে সদস্য পদ পেয়েছেন লিখে পোস্ট করেন এবং কেন্দ্রীয় কমিটিতে তাকে পদ দেওয়ায় ওই পোস্টে তিনি কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান।

তবে কেন্দ্রীয় কমিটিতে ওই নেত্রীর পদ পাওয়ার বিষয়টি সম্পূর্ণ ভুয়া বলে নিশ্চিত করেছেন উপ-দপ্তর সম্পাদক মিরাজুল ইসলাম খান শিমুল।

এ অভিযোগের বিষয়ে শামসুন নাহার কাকলী বলেন, আমি সেন্ট্রালে পদের জন্য আবেদন করে রেখেছিলাম। আজকে ফেসবুকে আমার টাইমলাইনে ঢাকা ভার্সিটির ফ্রেন্ডসহ কয়েকজন অভিনন্দন পোস্ট দিচ্ছিল। এরপর আমি নিজে পোস্ট করি। এখন তথ্যটা সত্য কী মিথ্যা সেটা যাচাই করছি। এটা ভুলও হতে পারে। আমরা যারা পলিটিক্স করি তারা নানাভাবে প্রতারিত হতেই পারি। সেন্ট্রাল ছাত্রলীগে যোগাযোগ করছি। সঠিক তথ্য পেলে জানাব।

পর দিন ওই নেত্রীর সঙ্গে বারবার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির উপ-দপ্তর সম্পাদক মিরাজুল ইসলাম খান শিমুল বলেন, গত ১০ দিনে আমাদের কোনো সদস্য ইস্যু করা হয়নি। এর বাইরে যতগুলো বিজ্ঞপ্তি ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে তার সবই ভুয়া। যারা এ ধরনের মিথ্যা তথ্য ছড়াচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, ভুয়া ওই বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী- গত ১১ জুলাই কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত শামসুন নাহার কাকলীকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হিসেবে মনোনীত করা হয়েছে- এমনটি দেখা যায়।


আরো পড়ুন