• রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৩১ অপরাহ্ন

বিদেশি প্রভুদের হস্তক্ষেপে এ দেশে নির্বাচন হবে না: যুবলীগ চেয়ারম্যান

/ ৩০ বার পঠিত
আপডেট: মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২২

যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্‌ পরশ বলেছেন, এ দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে, ভয়ভীতি দেখিয়ে হয়তো তাদের বিদেশি প্রভুদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা যাবে। কিন্তু কোনো বিদেশি প্রভুর নির্দেশনা বা হস্তক্ষেপে বাংলাদেশে নির্বাচন হবে না। সরকারেরও পরিবর্তন হবে না।

মঙ্গলবার দুপুরে চট্টগ্রামের কাজীর দেউড়ি এলাকায় ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে চট্টগ্রাম বিভাগীয় পর্যায়ে প্রস্তুতি সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

নগরীর পলোগ্রাউন্ড মাঠে আগামী ৪ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা সফলে এ প্রস্তুতি সভা করে দলটি।
শেখ ফজলে শামস্‌ পরশ বলেন, বিএনপির কোনো নেতার রাষ্ট্র পরিচালনা করার কোনো যোগ্যতা নেই। না আছে খালেদা জিয়ার; না আছে তার গুণধর পুত্র তারেক রহমানের। দক্ষতা নেই বলে আজ তারা এ দেশকে ধ্বংস করার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে।

সভাপতির বক্তব্যে যুবলীগ চেয়ারম্যান আরও বলেন, আওয়ামী লীগের সরকার মানুষকে স্বপ্ন দেখিয়ে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের যোগ্যতা রাখে। এ যোগ্যতা কেবল বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনারই আছে। এ যোগ্যতা অর্জন করতে হলে দুর্নীতি পরিহার করতে হবে। এ যোগ্যতা অর্জন করতে হলে রাষ্ট্র পরিচালনায় দক্ষতা থাকতে হয়। দক্ষতা নেই বলে নেতিবাচক রাজনীতির দিকে বিএনপি ধাবমান।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, বিএনপির অনেক নেতাকর্মী জোশে হুঁশ হারিয়ে ফেলেছে। আমি শুধু একটা কথাই বলব, জোশে হুঁশ হারায়েন না। বেহুঁশ হইয়েন না। রফিকুল ইসলাম মাদানীকে দেখছেন না? ওর হুঁশ ফিরে আসার পর তো পা জড়ায় ধরছে সকলের। আর আপনাদের হুঁশ ফিরে আসলে হয়তো ওর মতো পা জড়ায়ে ধরতে পারেন।

কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের সঞ্চালনায় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মঞ্জুর শাহিন, মুজিবুর রহমান চৌধুরী নিপন এমপি, সাহদাত তসলিম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম বদি ও চট্টগ্রাম বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নাইম, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুর রহমান সোহাগ, সহিদুল হক রাসেল, কেন্দ্রীয় যুবলীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আদিত্য নন্দী, কেন্দ্রীয় যুবলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক দেলোয়ার শাহজাদা ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য নিয়াজ মোর্শেদ এলিট প্রমুখ।


আরো পড়ুন