• শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:১৪ পূর্বাহ্ন




কিউবায় বৈধতা পেল সমকামী বিয়ে

/ ১৭ বার পঠিত
আপডেট: মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২
1664253866

হারিকেন ইয়ানের ভয় দূরে ঠেলে রোববার জাতীয় গণভোটে অংশগ্রহণ করেছে কিউবার তিন-চতুর্থাংশ যোগ্য ভোটার। যেখানে এক ঐতিহাসিক ভোটে বৈধতা পেয়েছে সমকামী বিয়ে।

গণভোটে কার্যকর হওয়া নতুন আইনে, কিউবার পারিবারিক কোডকে সংশোধন করা ছাড়াও নারী, শিশু এবং বয়স্কদের জন্য আরও বেশি সুরক্ষা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। নতুন এই আইনে বৈধতা পেয়েছে এলজিবিটিকিউ দম্পতিদের বিয়ে এবং সন্তান দত্তক নেওয়ার বিষয়টি।

এছাড়াও নতুন কোডটি সারোগেট গর্ভধারণের অনুমতি দেয়। দাদা-দাদিদের আরও বেশি অধিকার দেয় এবং লিঙ্গ সহিংসতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা প্রদান করে।

সোমবার সকাল পর্যন্ত, কিউবার ন্যাশনাল ইলেক্টোরাল কাউন্সিল অনুসারে, ৬৬% এরও বেশি ভোট দিয়েছেন, যা সংখ্যায় ৩৯ লাখ ৩৬ হাজার ৭৯০ জন। ভোটে জনগনের স্বতঃস্ফূর্ত অংশ গ্রহণ দেখে দেশটির প্রেসিডেন্ট মিগুয়েল দিয়াজ-ক্যানেল টুইটে লিখেন, ‘ভালোবাসাই এখন আইন। ’

তিনি আরও বলেন, ‘এই আইন কিউবান পুরুষ ও মহিলাদের কয়েক প্রজন্মের ঋণ পরিশোধ করছে, যাদের পারিবারিক প্রকল্প বছরের পর বছর ধরে এই আইনের জন্য অপেক্ষা করছে। আজ থেকে, আমরা একটি উন্নত জাতি হব। ’

কিউবা ২০১৮ সালে সমকামী বিবাহকে বৈধ করার জন্য অনুরূপ আইন বিবেচনা করেছিল। কিন্তু সরকার সমকামী বিরোধী প্রতিক্রিয়ার ভয়ে গণভোটের পরিকল্পনা পরিত্যাগ করে। তবে সদ্য সমাপ্ত ভোটে জয় হয় সমকামীদেরই।

রবিবারের ভোটের আগে, এই পদক্ষেপটি ক্রমবর্ধমান ধর্মপ্রচার আন্দোলন সহ সরকারের বাইরের আইন প্রণেতা এবং সংস্থাগুলির বিরোধিতার মুখোমুখি হয়েছিল। ইভাঞ্জেলিক্যাল যাজক ইয়োয়েল সেরানো এ বিষয়ে বলেন, ‘আমি মনে করি প্রায় ৯৫% খ্রিস্টানরা এটিকে অস্বীকৃতি জানায়। তবে এটি কেবল খ্রিস্টান নয়। কমিউনিস্টরা আছে যারা একমত নয়, বস্তুবাদী লোকেরা একমত নয়। অনেক লোক যারা বিভিন্ন জিনিসে বিশ্বাস করে তারাও এই নতুন পারিবারিক কোডের পরিবর্তনগুলির সাথে একমত নয়। ’

উল্লেখ্য, ন্যাশনাল সেন্টার ফর সেক্স এডুকেশনের পরিচালক এবং সমকামী দম্পতিদের অধিকারের প্রবর্তক মারিলা কাস্ত্রো সমকামী বিবাহকে বৈধ করার গণভোটের প্রধান সমর্থক ছিলেন। তিনি সাবেক প্রেসিডেন্ট রাউল কাস্ত্রোর মেয়ে এবং প্রয়াত কিউবার নেতা ফিদেল কাস্ত্রোর ভাতিজি।





আরো পড়ুন