তারাগঞ্জে ভিখারিনীকে ধর্ষণ গ্রেফতার ১

0
110

মোঃ রহমত মন্ডল, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
রংপুরের তারাগঞ্জে এক ভিখারিনী ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে।
পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর উপজেলার সয়ার ইউনিয়নের চিলাপাক মাটিয়ালপাড়া গ্রামের মোখলেছার রহমানের পুত্র শাকিল হোসেন (১৮) ও মনছার আলীর পুত্র দেলদার ওরফে বলদ (৪০) বাড়ির পাশে অবস্থান করছিলেন। শেখের দোলা রাস্তার ব্রিজ সংলগ্ন স্থানে ওই ভিখারিনীকে একা পেয়ে জোড় পূর্বক ধর্ষণের পর পানিতে ফেলে দেয় আসামীরা।

ইউপি সদস্য মমিনুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনাটি খুবেই দুঃখ জনক। তবে গতকাল রবিবার রাতে তেলিপাড়ায় আলম মুন্সির বাড়িতে শালিসে মোকছেদুল ওরফে ভেজাল, শাহজাহান ক্লার্ক, নুর আলম, মান্দু ও গ্রাম পুলিশ জোহান বাবুসহ আমি মিমাংশার জন্য বসেছিলাম।

সয়ার ইউপি সচিব এনামুল হক বলেন, ওই ঘটনার পরে গ্রাম পুলিশ জোহান বাবু একটি বাইসাইকেল আমার হেফাজতে রেখেছিল। তবে আর কিছু আমি জানি না।

ভিখারীর ছেলে জালাল মিয়া বাদী হয়ে ওই ঘটনায় অভিযুক্ত শাকিল হোসেন (১৮) ও মনছার দেলদার ওরফে বলদ (৪০) নামে থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

সয়ার ইউপি চেয়ারম্যান এস.এম মহিউদ্দিন আজম কিরণ বলেন, ঘটনাটি আমি জেনেছি, তবে অভিযুক্তদের শাস্তি দাবী করছি।
তারাগঞ্জ থানার ওসি জিন্নাত আলী বলেন, ওই ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে এবং গতকাল সোমবার আসামী দেলদার ওরফে বলদকে গ্রেফতার করে হাজতে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here