• শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৫৭ অপরাহ্ন




কুমিল্লা নগরীতে চাঞ্চল্যকর ভাবে শাশুড়ি হাতে বলি গৃহ বধু হাফছা!!

/ ২০৭ বার পঠিত
আপডেট: মঙ্গলবার, ৬ আগস্ট, ২০১৯

সাইফুল ইসলাম ফয়সাল: কুমিল্লা মহানগরীর রানীর দীঘির পূর্বপাড় মোসাঃআফছা আক্তার ( ২৬)নামের এক গৃহ বধু লাশ উদ্ধার করেন কোতোয়ালি মডেল থানার পুলিশ। এ ঘটনাটি আজ সকাল ১০:০০টার সময় রানীর দীঘির পূর্বপাড় থেকে স্বামী মোঃ গোলাম মাওলা ফারুক (৪০) অর্থনীতি লেকচারাল নামে পরিচিত বলে জানা যায়, তার মা ও আফছা শাশুড়ি খোদেজা বেগম না কি আজ থেকে কিছু দিন আগে তার মাথার চুল কেটে পেলে তার সাথে বিগত ১-২ বছর তাকে না কি তার স্বামী’র অনদিয়াই মানুষিকভাবে অত্যাচার করতো বলে জানান,নিহত আফছা ভাই ও তার পরিবারে সদস্যরা।
তারপর সরেজমিনে ঘুরে নিচ্ছিদ হতে পারি যে নিহত আফছা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে নাই,কিন্তু আফছার শশুড়’র বাড়ি লোকে ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে সকলের কাছে বলিয়ে বেড়াচ্ছে। এতে পুরোপুরি ভাবেবুঝা গিয়েছে যে নিহত আফছা সে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে নাই।

তার পরিবারের কাছ সূত্রে জানা যায় যে আফছা’র সাথে আজ থেকে কয়েক বছর যাবত তার স্বামী গোলাম মাওলা ফারুকের মা শাশুড়ি ও নন্দন সালমা আক্তার মানুষিকভাবে অত্যাচারে করে আসছে ও আজ মঙ্গলবার ৬ই আগষ্ট সকাল ১০:০০টায় ভাড়া থাকাকালীন বাসায় তাকে মেরে সিলিং ফ্যানের সাথে জুলিয়ে রাখেন বলে জানান।নিহত আফছা’র মৃত দেহ বর্তমানে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য রাখা আছে দেখা যায় হাসপাতালে গিয়ে।

এ বিষয়ে তার পরিবারে লোক বাদী হয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় অভিযোগ করেন। পরে কোতোয়ালি থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ারুল হককে মোটু ফোনে কল দিলে তাকে নিহত আফছা’র বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমরা বিষয়েটি খতিয়ে দেখছি বলে জানান সাংবাদিকদে





আরো পড়ুন