• মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১০:৩৫ অপরাহ্ন




ডায়ালাইসিস বন্ধ হতে পারে কিডনি ইনস্টিটিউটে

/ ২০ বার পঠিত
আপডেট: রবিবার, ২২ জানুয়ারি, ২০২৩

ভারতীয় প্রতিষ্ঠান স্যানডোর সঙ্গে সরকারের বকেয়া টাকা নিয়ে এখনও জটিলতা কাটেনি। ফলে ঘোষণা ছাড়াই জাতীয় কিডনি অ্যান্ড ইউরোলজি ইনস্টিটিউটে (নিকডু) ডায়ালাইসিস কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় প্রতিষ্ঠানটি।

রোববার (২২ জানুয়ারি) বন্ধ করে দেওয়ার পর তা আবার চালুও হয়েছে। তবে সোমবার একেবারে বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে ডায়ালাইসিস।

সরকারের পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ প্রকল্পের আওতায় ভারতীয় প্রতিষ্ঠান স্যানডোর পরিচালনা করে ডায়ালাইসিস সেন্টারটি। কিডনি ইনস্টিটিউটে সাপ্তাহিক ছুটি ছাড়া প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত ডায়ালাইসিস সেন্টার চালু থাকে।

হিসাব মতে বর্তমানে সরকারের কাছে স্যানডোর পাওনা প্রায় ৩০ কোটি টাকা। ফলে কাঁচামাল আমদানিতে সমস্যা হচ্ছে সংস্থাটির। এ নিয়ে গত সপ্তাহে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেওয়া হয়। সরকারের পক্ষ থেকে আশ্বাস ছাড়া কিছুই পায়নি স্যানডোর।

কিডনি ইনস্টিটিউটে স্যানডোরের ব্যবস্থাপক মো. নিয়াজ খান সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আমাদের কাঁচামালের সংকট। সরকারের কাছে পাওনা টাকার জন্য একাধিকবার চিঠি দেওয়া হয়েছে। আমরা এখনও সাড়া পাচ্ছি না। টাকা না পেলে আগামীকাল (সোমবার) সেবা আবারও বন্ধ রাখতে হবে।

হাসপাতালটির পরিচালক অধ্যাপক ডা. আক্তারুজ্জামান সংবাদমাধ্যমকে জানান, শুনেছি ডায়ালাইসিস বন্ধ করে দিয়েছিল। পরে আবার চালু করা হয়েছে। হাসপাতালের সঙ্গে স্যানডোরের চুক্তি নয়। তাদের চুক্তি মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে। তারা সেখানে যোগাযোগ করুক। ডায়ালাইসিস বন্ধ করা কোনো সমাধান হতে পারে না।





আরো পড়ুন