• বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:৪৭ অপরাহ্ন

পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচলের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন

/ ১৮ বার পঠিত
আপডেট: শনিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২৩

শনিবার (২১ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ‘ফেসবুক গ্রুপ- পদ্মা সেতুতে বাইক চলার দাবি জানাই’ ব্যানারে এর আয়োজন করা হয়।

বক্তারা বলেন, স্বপ্নের পদ্মা সেতু হওয়ার আগে দক্ষিণ বঙ্গের মানুষ স্বপ্ন দেখেছিল মোটরসাইকেল চালিয়ে তারা কর্মস্থলে যাবেন। এরপর কাজ শেষে বাড়ি ফিরবেন। কিন্তু উদ্বোধনের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই পদ্মা সেতুতে মোটরসাকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। সরকার মোটরসাইকেল চালকদের থেকে ভ্যাট-ট্যাক্স নিয়ে লাইসেন্স দিচ্ছে। এভাবে ২১ জেলার প্রায় তিন কোটি মোটরসাইকেল চালকের রাজধানীতে আসার পথ বন্ধ রাখা সাংবিধানিক অধিকারের পরিপন্থী।

তারা আরও বলেন, দুর্ঘটনা রোধে প্রয়োজনে চালকদের সচেতন করার পাশাপাশি মোটরসাইকেল চলাচলের জন্য আলাদা লেন, গতি নির্ধারণ, লাইসেন্স ইত্যাদির বিষয়ে কড়াকড়ি আরোপ করা যেতে পারে। কিন্তু তা না করে পদ্মা সেতুতে দীর্ঘদিন ধরে মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। এতে সরকার কোটি কোটি টাকা রাজস্ব হারাচ্ছে। পাশাপাশি মোটরসাইকেল চলাকেরাও প্রতিদিন ঝুঁকি নিয়ে লঞ্চ ও ফেরিতে পদ্মা নদী পাড়ি দিচ্ছেন। তাই পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার দাবি জানান চালকরা।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন মোটরসাইকেল চালকদের পক্ষে এ বিষয়ে আদালতে রিটকারী ও বাংলাদেশ রিপাবলিকান পার্টির সভাপতি কে এম আবু হানিফ হৃদয়, মহাসচিব এফ এম মিলন, অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার ও অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান প্রমুখ।


আরো পড়ুন