• শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন




ভারতকে ৩–০ গোলে উড়িয়ে গ্রুপ সেরা বাংলাদেশ

/ ২৩ বার পঠিত
আপডেট: বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২
BANGLADESH TEM

ভারতকে রীতিমতো বিধ্বস্ত করে ৩–০ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। জোড়া গোল করেছেন সিরাত জাহান। অন্য গোলটি কৃষ্ণা রানী সরকারের। টুর্নামেন্টে টানা তিন জয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হলো বাংলাদেশ। এই জয়ে সেমিফাইনালে স্বাগতিক নেপালকে এড়াতে পারল বাংলাদেশ। মঙ্গলবার নেপালের কাঠমান্ডুতে নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপম্যাচে ভারতকে এ হারের স্বাদ দেয় সাবিনা-কৃষ্ণা-স্বপ্নারা। ১৬ সেপ্টেম্বর সেমিফাইনালে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ভুটান।

এদিন বাংলাদেশের মেয়েদের আধিপত্য ছিল চোখে পড়ার মতো। মুহুর্মুহু আক্রমণে কোণঠাসা হয়ে যায় ভারতীয়রা। গোল আসতে পারত সপ্তম মিনিটেই। সানজিদা আক্তারের ক্রসে সিরাত হেডে বল জালে ঠেলেছিলেন, কিন্তু তার আগে গোলরক্ষককে ফাউলের বাঁশি বাজিয়েছেন রেফারি। তবে বাংলাদেশকে সেই গোল পেতে অপেক্ষা করতে হয়নি খুব বেশি।

সাবিনার কাছ থেকে বল পেয়ে কৃষ্ণা রানী থ্রু পাস বাড়ান বক্সে, সিরাত গোলরক্ষের পাশ দিয়ে সেই বল জালে ঠেলে দেন। ভারতের বিপক্ষে এর আগে কোনো ম্যাচে লিড নিতে না পারা বাংলাদেশ এই গোলের পর যেন আরো আত্মবিশ্বাসী হয়ে ওঠে। সিরাতের সঙ্গে দেওয়া-নেওয়া করে ৩৪ মিনিটে কৃষ্ণাই বাঁ দিকে ঢুকে বল জালে পাঠিয়েছেন। বিরতিতে যায় বাংলাদেশ তাই ২-০-তে এগিয়ে থেকে।

বিরতি থেকে ফিরে ভারতকে ম্যাচে ফিরতে না দিয়ে উল্টো যেন জয়টা নিশ্চিত করতে চায় বাংলাদেশ। সাবিনার থ্রু পাসে সিরাত সেই একই রকমভাবে গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে বল জালে ঠেলে দিলে জয় অনেকটাই মুঠোয় চলে আসে বাংলাদেশের। বাকি সময়ে একইভাবে ভারতীয়দের আর কোনো সুযোগ না দিয়ে সেই ঐতিহাসিক জয় ছোঁয় বাংলাদেশ। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় বাংলাদেশ সেমিফাইনালে শক্তিশালী নেপালকেও এড়িয়েছে। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে তারা খেলবে ভুটানের বিপক্ষে।

এদিকে মেয়েদের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে আগেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে ভারত। প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ৩-০ গোলে জেতে তারা। দ্বিতীয় ম্যাচে মালদ্বীপকে ৯-০’র বিশাল ব্যবধানে হারায় ব্লু টাইগ্রেস। মালদ্বীপের বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিক সহ চার গোল করে অঞ্জু তামাং। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নামে ভারতীয় নারী ফুটবল দল। কিন্তু এলেমেলো ফুটবলে বাংলাদেশের কাছে ০-৩ গোলে হেরে যায় তারা। বাংলাদেশ একাদশ: রূপনা চাকমা, শিউলি আজিম, শামসুন্নাহার, আঁখি খাতুন, মাসুরা পারভীন, মারিয়া মান্ডা, মনিকা চাকমা, সানজিদা আক্তার, কৃষ্ণা রানী সরকার, সাবিনা খাতুন ও সিরাজ জাহান স্বপ্না (রিতুপর্ণা চাকমা)।





আরো পড়ুন