• শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৪২ অপরাহ্ন




সপ্তাহের ব্যবধানে বেড়েছে যেসব পণ্যের দাম

/ ১০ বার পঠিত
আপডেট: রবিবার, ২০ নভেম্বর, ২০২২
পণ্যের দাম

সপ্তাহের ব্যবধানে নিত্যপ্রয়োজনীয় বেশির ভাগ পণ্যের দাম বেড়েছে। তবে কিছু পণ্যের দামও কমেছে। শুক্রবার (১৮ নভেম্বর) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, সপ্তাহের ব্যবধানে চাল, ডাল, আটা, ময়দা, তেল, চিনি ও ছোলার দাম বেড়েছে। কমেছে পেঁয়াজ, রসুন, আদা, ডিম ও ব্রয়লার মুরগির দাম।

বাজারে মোটা চাল কেজিতে ২ থেকে ৩ টাকা বেড়েছে। মাঝারি মানের চাল ৭০ থেকে ৭৫ টাকা এবং ভালো মানের সরু চাল বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকার ওপরে।

প্যাকেট আটায় ৪ টাকা বেড়ে প্রতিকেজি ৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্যাকেট ময়দায় দাম ১০ টাকা বেড়ে ৮০ টাকায়, খোলা আটা ৬৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর ময়দা বিক্রি হচ্ছে ৭৫ টাকায়।

লিটারপ্রতি ১২ টাকা বেড়ে বোতল সয়াবিন তেল ১৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। খোলা সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ১৭২ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা এতদিন ১৫৮ টাকা ছিল।

এ ছাড়া ১৩ টাকা বাড়িয়ে প্রতিকেজি প্যাকেটজাত চিনির দাম ১০৮ টাকা নির্ধারণ করেছে সরকার। যদিও বাজারে প্রতিকেজি খোলা চিনি বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকা দামে।

বেড়েছে ডালের দামও। খোলা বাজারে মসুর ডালের কেজি মানভেদে ১১০ থেকে ১৪০ টাকা এবং ছোলার প্রতি কেজিতে ৫ টাকা বেড়ে ৮৫ থেকে ৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে বাজারে শীতকালীন সবজির দাম কমতে শুরু করেছে। সিম ৫০ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পটল, করলা, বেগুন, লতির কেজি ৪০ থেকে ৫০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। ফুলকপি ও বাঁধাকপি প্রতি পিস ৩০ থেকে ৪০ টাকা।

বাজারে পেঁয়াজের দামও কিছুটা কমেছে। প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৫৫ টাকায়, যা সপ্তাহ খানেক আগে ৬০ টাকা ছিল। আমদানি পেঁয়াজের কেজি মানভেদে ৪০ থেকে ৫০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। দেশি রসুন কেজিতে ১০ টাকা কমে ৭০ থেকে ৯০ টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছে। দেশি আদা বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ২২০ টাকায়।

এ ছাড়া বাজারে ফার্মের ডিম প্রতি হালি ৪০ থেকে ৪৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। যা এক সপ্তাহ আগে ছিল ৫০ টাকা।





আরো পড়ুন