• শনিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৮:৪৪ পূর্বাহ্ন

রাজধানীতে মদের বিল চাওয়ায় বার ভাঙচুর তিতুমীর কলেজের ছাত্রলীগ

/ ৫৭ বার পঠিত
আপডেট: মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

অনলাইন ডেস্ক:-
মদ্যপানের পর বিল চাওয়ায় বার ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে রাজধানীর সরকারি তিতুমীর কলেজ শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে।

শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) মধ্যরাতে মহাখালীর জাকারিয়া বারে এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বনানী থানায় মামলা হয়েছে। সেইসাথে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কয়েক লাখ টাকা ও ১২০ বোতল মদ লুটের অভিযোগও উঠেছে।

বারে থাকা প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শনিবার আনুমানিক রাত এগারোটার দিকে সরকারি তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী ওই বারে মদ পান করার জন্য যান। মদ পান শেষে বিল দেয়ার কথা বললে তারা বারের ম্যানেজারসহ অন্যান্য স্টাফদের ওপর হামলা করে।

এক পর্যায়ে তাদেরকে শান্ত করার চেষ্টা করেন বার ম্যানেজার। পরে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি রিপন মিয়া এবং সাধারণ সম্পাদক জুয়েল মোড়লকে ফোনে জানালে হল থেকে শতাধিক ছাত্রলীগ নেতাকর্মী পাঠানো হয়। তারা বারের গেট তালাবদ্ধ দেখতে পেয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করে।

ওই বারের কর্মচারী উজ্জল মিয়া বলেন, রাত সাড়ে ১১টার দিকে তিতুমীর কলেজের কিছু ছেলে নিজেদের মধ্যে মারামারি করে। তারপর আমাদের বারে এসে হামলা করে। এ সময় ক্যাশ ভেঙে ৩ লাখ ২০ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায় তারা।

তিনি আরও জানান, এ সময় ৭৫ ইঞ্চি একটি টিভি, ২০ থেকে ২৫টি চেয়ার ভাঙচুর করে। বারে থাকা প্রায় চার লাখ টাকার ৪০ বোতল ফরেন হুইস্কি লুট করে নিয়ে যায়। তারা আরও প্রায় ১ লাখ ৭৬ হাজার টাকার ৮০ বোতল কেরুর মদ লুট করে।

পুলিশের গুলশান জোনের সহকারী কমিশনার (এসি) আব্দুল্লাহ আল মাসুম একটি মামলা হয়েছে জানিয়ে গণমাধ্যমে বলেন,এ ঘটনায় ৪ থেকে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত ৫০ জনের নামে বনানী থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার তদন্তকাজ চলছে।

বার কর্তৃপক্ষ জানায়, ভাঙচুর এবং লুটপাটে নেতৃত্ব দেয়ার অভিযোগ ওঠে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান সাগরের বিরুদ্ধে। এসময় শাখা ছাত্রলীগের সহসভাপতি লোকমান হোসেন রাহুল, সুলতান ও শাওন, সহসম্পাদক শাওন ও সাব্বির, উপ ধর্মবিষয়ক সম্পাদক নিলয় সেন, উপ ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মামুন এবং কর্মী কাউসার ও শাহিন মাতব্বরসহ বেশ কয়েকজন উপস্থিত ছিলেন।

জানতে চাইলে তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি রিপন মিয়া বলেন, এরকম ঘটনা আমাকে বনানী থানার ওসি জানিয়েছেন। কিন্তু তারা ঘটনা ঘটিয়েছে ক্যাম্পাসের বাইরে। এটা তাদের ব্যক্তিগত অপকর্ম। এ বিষয়ে আমার কিছু করার নেই।


আরো পড়ুন