• বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:৩৬ পূর্বাহ্ন

হাটহাজারী’তে ককটেল বিস্ফোরণ ও নাশকতা মামলার চট্টগ্রাম ০৪

/ ৩৫ বার পঠিত
আপডেট: শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২৩

র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম গত ২২ নভেম্বর ২০২৩ খ্রিঃ তারিখ চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায় পৃথক ০৩টি অভিযান পরিচালনা করে ০৩ জন নাশকতাকারীকে আটক করা হয়। বিস্তারিত নিম্নরুপঃ

গত ২৯ অক্টোবর ২০২৩ ইং তারিখ বিএনপির ডাকা অবরোধ চলাকালে রাত আনুমানিক ১১.০০ ঘটিকায় চট্টগ্রাম-খাগড়াছডি মহাসড়কে অবরোধ কর্মসূচীকে কেন্দ্র করে কতিপয় দুস্কৃতিকারীরা সরকার বিরোধী বিভিন্ন ধরণের স্লোগান দিয়ে লাঠি-সোঠা, লোহার রড ইত্যাদি নিয়ে রাস্তায় যানবাহন চলাচলে বাধা সৃষ্টি, সাধারণ জনগণের মাঝে ভয়-ভীতির উদ্দেশ্যে কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নাশকতামূলক কর্মকান্ড সৃষ্টি করে। এসময় ভিকটিম জিসান চৌধুরী (২৩) বাড়ি ফেরার সময় হাটহাজারী পৌরসভা মুন্সি মসজিদ এর সামনে পৌছলে হাটহাজারী পৌরসভা বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক এবং ০৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আব্দুস শুক্কুর এবং অন্যান্য নাশকতাকারীরা ভিকটিমের পথরোধ করে এলোপাথারি মারধর করে।

এছাড়াও অবরোধকারীরা ভিকটিম এবং আওয়ামীলীগ সরকারকে উদ্দেশ্য করে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে নাশকতাকারীরা পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে পুলিশ ঘটনাস্থল হতে বিভিন্ন আলামত জব্দ করে। উক্ত ঘটনায় ভিকটিম জিসান চৌধুরী  বাদী হয়ে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানায় ৩৫ জন এজাহার নামীয় এবং অজ্ঞাতনাময় ৭০/৮০ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করে। যার মামলা নং-২৫ তারিখ-৩০ অক্টোবর ২০২৩ ইং, ধারা-১৪৩/৩৪১/৩২৩/ ৩০৭/৫০৬/১১৪ পেনাল কোড ১৮৬০ The Explosive Substances act-3/4।  র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম সূত্রে বর্ণিত মামলার পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে গোয়েন্দা নজরদারি এবং ছায়াতদন্ত অব্যাহত রাখে। নজরদারীর এক পর্যায়ে র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম জানতে পারে যে, মামলার এজাহার নামীয় আসামি মোঃ আব্দুস শুক্কুর চট্টগ্রাম মহানগরীর পতেঙ্গা থানাধীন দক্ষিণ পতেঙ্গা চরবস্তি এলাকায় অবস্থান করছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‍্যাব-৭, চট্টগ্রামের একটি আভিযানিক দল গত ২২ নভেম্বর ২০২৩ইং তারিখ আনুমানিক ১৮১০ ঘটিকায় বর্ণিত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে হাটহাজারী পৌরসভা বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক এবং ০৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আব্দুস শুক্কুর (৫৬), পিতা-মৃত ছালেহ আহমেদ, সাং-মাইজপাড়া, থানা-হাটহাজারী, জেলা-চট্টগ্রামকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে যে, অবরোধ কর্মসূচী বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সড়কে যানবাহন চলাচলে বাধা সৃষ্টি, ভাংচুর, ককটেল বিষ্ফোরণ ঘটিয়ে নাশকতা সৃষ্টি এবং বাদী ভিকটিমকে মারধর করে।

অপর একটি অভিযানিক দল চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুন্ড থানার মামলা নং- ১৪(১)২০১৫, জিআর- ১৪/২০১৫, ধারাঃ ১৯০৮ সনের বিষ্ফোরক দ্রব্য আইনের ৩ এর ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামি আলী আকবর’কে চট্টগ্রাম মহানগরীর চকবাজার থানাধীন দামপাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আসামি আলী আকবর (৩৮), পিতা-আবুল বাশার, সাং-মধ্যম ইয়াকুব নগর, থানা-সীতাকুন্ড, জেলা- চট্টগ্রাম’কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে গ্রেফতারকৃত আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদে সে সূত্রে বর্ণিত মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামি মর্মে স্বীকার করে। গ্রেফতারকৃত আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায় সে আইন শৃংখলা বাহিনীর নিকট হতে গ্রেফতার এড়াতে দীর্ঘ ৮ বছর যাবৎ চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে ছদ্মবেশে আত্মগোপন করে আসছিল।

এছাড়াও অপর একটি সংবাদের মাধ্যমে র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম জানতে পারে যে, গত ১৮ নভেম্বর ২০২৩ তারিখ আনুমানিক ০৮.০০ ঘটিকায় চট্টগ্রাম মহানগরীর চাদগাঁও থানাধীন পানামা প্লাজা সামনে পাকা রাস্তার উপর দাড়িয়ে থাকা গাড়ীতে অজ্ঞাতনামা দুস্কৃতিকারীরা অগ্নি সংযোগ করে পালিয়ে যায়। উক্ত অগ্নি সংযোগের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার সন্ধিগ্ধ আসামি চট্টগ্রাম মহানগরীর চাদগাঁও  এলাকায় অবস্থান করছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে গত ২২ নভেম্বর ২০২৩ ইং তারিখ আনুমানিক ২২৫০ ঘটিকায় র‍্যাব-৭, চট্টগ্রামের একটি আভিযানিক দল বর্ণিত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে সন্ধিগ্ধ আসামি চাদগাঁও থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মোরর্শেদ (৩৪), পিতা-মজু মিয়া, সাং- চাদগাঁও, থানা- চাদগাঁও, জেলা- চট্টগ্রাম মহানগরীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামি’কে জিজ্ঞাসাবাদে সে স্বীকার করে যে, গত ১৮ নভেম্বর ২০২৩ তারিখ মহানগরীর চাদগাঁও এলাকায় প্লাজা সামনে পাকা রাস্তার উপর দাড়িয়ে থাকা গাড়ীতে অগ্নি সংযোগ করে পালিয়ে যায় বলে জানায়।

উল্লেখ্য যে, সিডিএমএস পর্যালোচনায় গ্রেফতারকৃত আসামি হাটহাজারী পৌরসভা বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম-আহ্বায়ক এবং ০৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আব্দুস শুক্কুর এর বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানায় নাশকতা, অস্ত্র, ডাকাতি এবং সরকারী সম্পতির ক্ষতিসাধন সংক্রান্তে ১০টি এবং চাদগাঁও থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মোরর্শেদ এর বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম মহানগরী চাদগাঁও থানায় নাশকতা সংক্রান্তে ০১টি মামলার তথ্য পাওয়া যায়। গ্রেফতারকৃত আসামিদের পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।


আরো পড়ুন