• মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ১১:২৬ পূর্বাহ্ন
Headline
চরকাওনায় গৃহবধুর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার পাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে থানায় নেওয়া হলো প্রথম আলোর রোজিনা ইসলামকে। মুক্তির দাবী বিএমএসএফের সাংবাদিক রোজিনাকে সচিবালয়ে অবরুদ্ধ, হেনস্থার বিচার ও মুক্তির দাবি বিএমএসএফ’র কোয়ারেন্টিনে থাকা তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেফতার মাদারীপুরে স্পিডবোট দুর্ঘটনায় ২৬ জন নিহতের ঘটনায় প্রধান আসামি গ্রেপ্তার, জেলহাজতে প্রেরণ যশোরে ১০টি সোনার বার সহ পাচারকারী আটক যশোরের শার্শায় পিতার হাতে মেয়ে ধর্ষনের চেষ্টা পিতা আটক ইসরায়েলে ২৫০ কেজি বোমার ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ দেশে করোনার যে চারটি ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে ইসরায়েলের নৃশংস আগ্রাসনে নীরবতা ভাঙ্গলো রাশিয়ার

যুবলীগে পদ পেয়ে বেপরোয়া আচরণ করছেন নিক্সন: কাদের মির্জা

Reporter Name / ১৭৮ Time View
Update : বুধবার, ২০ জানুয়ারি, ২০২১

ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান চৌধুরী ওরফে নিক্সন চৌধুরী ও নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার নব-নির্বাচিত মেয়র আবদুল কাদের মির্জার কথার লড়াই যেন থামছেই না। গত রোববার নিক্সন চৌধুরী এক সমাবশে কাদের মির্জাকে ‘পাগল’ আখ্যায়িত করেছিলেন। শুধু তাই নয় তাকে পাবনায় আটকে রাখতেও সরকারকে অনুরোধ করেন তিনি।

এমন বক্তব্যের ঠিক দুইদিন পর এবার নিক্সন চৌধুরীকে একহাত নিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর ছোট ভাই কাদের মির্জা। আজ দেশের বেসরকারি একটি টিভি চ্যানেলকে সাক্ষাৎকার দেন তিনি। এসময় নিক্সন চৌধুরীকে তীব্র বাক্যবাণে বিদ্ধ করেন নব-নির্বাচিত এ মেয়র।

কাদের মির্জা বলেন, নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্বাচন করে সংসদ সদস্য হয়ে উল্টো যুবলীগের প্রেসিডিয়ামে জায়গা পাওয়ায় বেপরোয়া আচরণ করছেন ফরিদপুরের সদরপুরের এমপি মুজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন। তিনি বলেন, সে তো এখন এমপি, ছেলে বলা যায় না। আমাদের দুর্ভাগ্য এসব দেখতে হচ্ছে। বাচ্চা ছেলেরা যাদের কোন যোগ্যতা নেই, নীতি নৈতিকতা নেই, যারা মাদকাসক্ত, তারা আজকে এমপি হচ্ছে।

 

আমি মনের কষ্ট থেকে কিছু কথাবার্তা বলি, বলতে গিয়ে কিছু ভুল বলতেও পারি। সে জনগণের সামনে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে চ্যালেঞ্জ করে জাফরউল্লাহ সাহেবের বিরুদ্ধে ভোট করে সন্ত্রাসী দিয়ে জয়যুক্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, নিক্সন চৌধুরী এই ঔদ্ধত্য, ক্ষমতা পাওয়ার উৎস হচ্ছে যুবলীগের মত একটা সংগঠনের প্রেসিডিয়াম সদস্য পাওয়ায়। কীভাবে তাকে প্রেসিডিয়াম সদস্য করা হলো। সে ইউএনও এবং অ্যাসিল্যান্ডের মত সম্মানজনক সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে। তার মুখ দিয়ে তো এসব খারাপ শব্দ সবসময় আসবেই।

কে শুনবে আমাদের এসব কষ্টের কথা। এই ছেলেটা প্রতিনিয়ত বিভিন্ন লোকের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে যাচ্ছে। এই সাহস সে পায় কোথা থেকে, কে দেয় তাকে এই সাহস। সবাই ছেড়ে দিলেও আল্লাহ তাকে ছাড়বে না। আমার মুখ বন্ধ করার নানা চেষ্টা চলছে। আমি স্পষ্ট ভাষায় বলবো, আমার মৃত্যুর আগ পর্যন্ত আমি সত্য কথা বলে যাবো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category