• শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১২:৪৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম
৩ দিন ব‌্যাপী পিঠা পার্বণ ও উদ্যোক্তা মেলা। ইথিক্যাল ড্রাগস লিমিটেডে ভূয়া সনদে চাকরি ড্রাগ লাইসেন্স ছাড়াই ফার্মেসী ও রোগী চিকিৎসা!  শার্শায় ওয়ারেন্টভুক্ত পালাতক আসামী আটক! কুমিল্লা দেবিদ্বারে থেকে আশোরগঞ্জে ইটেরভাটা উল্টে দিলো ১০ টিরও বেশি মটর সাইকেলে! যে ভেরিয়েন্টাইনই আসুক না কেন স্বাস্থবিধি মেনে চলার বিকল্প নেই: ডাঃ আয়েশা আক্তার শিল্পী। এসব আস্ফালন আমাকে মোটেও বিচলিত করে না, সাঈদুর রহমান রিমন ফুলের রাজ্যে গদখালীতে ফুল চাষী ও ব্যবসায়ীদের প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত নবাবগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতে মাদক সেবনের দায়ে যুবকের কারাদন্ড গাইবান্ধায় বিদ্রোহী দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ আ. লীগ থেকে চার নেতা বহিষ্কার ঠাকুরগাঁওয়ে এতিম শিশুদের পাশে শীতবস্ত্র নিয়ে জেলা প্রশাসক

গণধর্ষণের অভিযোগ জানাতে থানায় গিয়ে পুলিশের হাতে ফের ধর্ষণ !

অনলাইন ডেস্ক / ২০৪ Time View
Update : শুক্রবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০২০

গণধর্ষণের শিকার এক তরুণী থানায় অভিযোগ জানাতে গিয়ে সেখানেই ফের ধর্ষণের শিকার হয়েছেন  বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। বৃহস্পতিবার (২৪ ডিসেম্বর) সংবাদমাধ্যমে এ কথা জানান ওই তরুণী। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের শাহাজানপুর এলাকায়। ওই তরুণীর অভিযোগ, বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) এফআইআর দায়ের করতে ব্যর্থ হওয়ার পর তিনি শাহাজানপুর থানার পুলিশ অফিসার অবিনাশ চন্দ্রের সঙ্গে দেখা করেন। তরুণীর কাছ থেকে সবকিছু শুনে ওই পুলিশ অফিসার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

 

শাহাজানপুর থানার সার্কেল অফিসার ব্রহ্মপাল সিংয়ের ওপরে রয়েছে তদন্তের দায়ভার। তিনি জানিয়েছেন, পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যদি তরুণীর অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত হওয়া যায়, তারপরই এফআইআর দায়ের করা হবে। আসলে ঠিক কী হয়েছিল সেদিন? গত ৩০ নভেম্বর ভারতের জালালাবাদ থানা এলাকার মদনপুরের বাসিন্দা ৩৫ বছরের ওই তরুণী রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় হঠাৎ সেখানে একটি গাড়ি থামে। গাড়ি থেকে পাঁচজন ব্যক্তি নেমে এসে তাকে টেনে পাশের ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। পরে নির্যাতিতা ঘটনার অভিযোগ জানাতে যান জালালাবাদ থানায়। তখনই থানার উপপরিদর্শক (এসআই) তাকে আলাদা ঘরে যেতে বলে আলোচনার জন্য। তারপর সেই ঘরেই ওই তরুণীকে ধর্ষণ করেন এসআই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category