• শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
জামালপুরে অবৈধভাবে তৈরি হচ্ছে তাল মিশ্রি, খেজুরের গুড়সহ বাহারি খাবার জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ ডাংধরা ইউনিয়নে মাদকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ডাকাতি মামলার আন্তঃজেলা ডাকাত চক্রের ৬ সদস্যসহ গ্রেফতার ৯ কাজী ফারুকী স্কুল এন্ড কলেজের ৬ শিক্ষার্থী বহিষ্কার ১১২০৭ পিস ইয়াবাসহ ০১ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছেন র‍্যাব মন্দির ভাংচুর ও আইসিটি”সহ আরও  চারটি মামলায় স্থায়ী জামিন পেয়েছেন বিএনপির ভাইসচেয়ারম্যান বুলু – ভিডিও ৫২৩ লিটার চোলাই মদসহ ২ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব – ভিডিও বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের জার্নালিজম বিভাগে অন্তঃক্রিকেট টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত ত্রিশাল উপজেলার আইন শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত ঢাবির চিঠি – সামিয়ার কাছে ১১ লাখ ৪১ হাজার টাকা দাবি

কুমিল্লা ব্রাহ্মণপাড়ায় ভূমি উন্নয়ন কর ব্যবস্থাপনার কার্যক্রম অনলাইনে শুরু!

স্টাফ রিপোর্টার, আব্দুল্লাহ আল মামুন ভূঁইয়া / ৩১৫ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০

কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়ায় অনলাইনভিত্তিক ভূমি উন্নয়ন কর ব্যবস্থাপনার কার্যক্রম শুরু হয়েছে।এই উপলক্ষে বিভিন্ন কার্যক্রম হাতে নিয়েছে উপজেলা ও ইউনিয়ন ভূমি অফিস।খুব শীঘ্রই ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার ভূমি মালিকগণ ঘরে বসেই অন লাইনের মাধ্যমে নিজ নিজ ভূমি উন্নয়ন কর (খাজনা) দিতে পারবেন এবং দাখিলা নিতে পারবেন।

মঙ্গলবার(২৪নভেম্বর) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ জাফর সাদিক চৌধুরী। উপজেলা ভূমি অফিস সূত্রে জানা যায়,অনলাইনভিত্তিক ভূমি উন্নয়ন কর ব্যবস্থাপনার কার্যক্রমের অংশ হিসেবে প্রথম ধাপে উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের আওতাধীন মকিমপুর মৌজার ভূমির মালিকগণ খতিয়ানের মালিকের নাম (মালিক মৃত হলে ওয়ারিশ সনদ),মালিকের মোবাইল নম্বর,পাসপোর্ট সাইজের ১কপি ছবি,জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্মনিবন্ধন সনদের ফটোকপি এবং চাহিদামাফিক অন্যান্য কাগজপত্র তাদের নিজ ইউনিয়ন ভূমি অফিসে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণের নিকট জমা দিতে হবে।

এ বিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ জাফর সাদিক চৌধুরী বলেন,ব্রাহ্মণপাড়ায় অনলাইনভিত্তিক ভূমি উন্নয়ন কর ব্যবস্থাপনার কার্যক্রম শুরু হয়েছে।এর মধ্যে মাধবপুর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের আওতাধীন মকিমপুর মৌজায় অনলাইনভিত্তিক ভূমি উন্নয়ন কর ব্যবস্থাপনার কার্যক্রম শুরু হয়েছে।কাজ শেষ হলে শীঘ্রই ভূমি মালিকগণ ঘরে বসে ভূমি উন্নয়ন কর(খাজনা) দিতে পারবেন এবং দাখিলা নিতে পারবেন।

তিনি আরও বলেন,কেউ তথ্য দিতে ব্যার্থ হলে ভবিষ্যতে খাজনার দাখিলা সংগ্রহ করতে এবং জমির দলিল করতে বা ক্রয়-বিক্রয় করতে ও নামজারি খারিজ করতে সমস্যায় পড়তে পারেন।তাই সকলকে সংশ্লিষ্ট ভূমি অফিসে সঠিক তথ্য প্রদানের আহবান জানান তিনি।


More News Of This Category