• শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন
Headline
ধর্মপাশায় ২৪নং পিআইসি কতৃক পারিবারিক শ্মশান বিনষ্ট ও ব্যক্তি মালিকানাদিন জমির ক্ষতিতে মানববন্ধন, ভিডিও সুনামগঞ্জে নির্মাণকালেই ১৫ কোটি টাকার সেতুর গার্ডার ভেঙ্গে পড়লো খালে || ভিডিও ধর্মপাশায় ইউপি সদস্য আবুল কাশেম মহত উদ্যোগে রাস্তা মেরামত || ভিডিও ধর্মপাশার বাদশাগঞ্জ বাজারে অগ্নিকাণ্ডে একটি মার্কেট পুড়ে ছাই ৫০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি || ভিডিও গাইবান্ধায় মাদক সেবনের দায়ে ৫ জনকে কারাদণ্ড || ভিডিও জামালপুরে গাছে ঝুলন্ত এক কিশোরীর লাশ উদ্ধার || ভিডিও পাখিদের আবাসস্থল রক্ষার্তে যশোরের ঝিকরগাছায় গাছে গাছে ভাড় টাঙ্গিয়ে শুভ উদ্বোধন করেছেন একদল সমাজ সেবক জয়পুরহাটে জাতীয় বীমা দিবস পালিত || ভিডিও মোরেলগঞ্জের বহরবুনিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যানের গণসংযোগ ও আলোচনা সভা || ভিডিও সুনামগঞ্জে খুনের ঘটনায় একজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড || ভিডিও

প্রফেসর শাহ আলম একজনই

Reporter Name / ৮৫ Time View
Update : মঙ্গলবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২০
প্রফেসর শাহ আলম একজনই
প্রফেসর শাহ আলম একজনই

যে কেউ তাঁকে ভুলতে পারে তা কেবল অসম্ভব হবে। আপনার সঙ্গে যখন ওনার কথা হবে আপনার অনুভব হবে আপনিই একমাত্র গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি । তিনি আপনার সম্পর্কে সমস্ত কিছু, সমস্ত ধরণের বিবরণ মনে রেখেছেন। তিনি নিজের সম্পর্কে খুব বেশি কথা বলা পছন্দ করেন না। তিনি অন্য মানুষের কাজ এবং কৃতিত্ব সম্পর্কে কথা বলতে পছন্দ করেন। আমি তাঁকে অবশ্যই নিশ্চিত মনে রাখব কারণ বিশ্ববিদ্যালয়ে এমন কোনও লোকই ছিল না যার সাথে আমি আমার সর্বশেষ বই, ধারণা বা খসড়া কাজটি ভাগ করে নিতে পারি। যিনি বড় প্রফেসর কিংবা প্রমোশন এর চেয়ে মানুষ হওয়াটাকে ইম্পর্টেন্স দিতেন। অনেকে উনাকে ভালোবাসতেন যাতে নিজেদের উপকার হয় আর উনি মানুষকে ভালোবাসতেন যাতে সবাই মিলে ভালো থাকা যায়, ভালো কিছু করা যায়। তবে ওনার মতো সম্মান এবং ভালোবাসা খুব কম শিক্ষক আজকাল পেয়ে থাকেন। উনি বলতেন, কেউ কেউ শিক্ষক হয় আর বেশিরভাগ চাকুরে থেকে যায়। হাজারো চাকুরের মাঝে উনি ছিলেন একজন আপাদমস্তক শত ভাগ শিক্ষক।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরির সময় স্যার এর সঙ্গে নতুন বই, নিবন্ধ এবং আইন শিক্ষার সমস্যা বাংলাদেশ এবং এর বাইরে বিভিন্ন বিষয়ে নিয়মিত কথাবার্তা হত। আমি সময় সময় স্যারের সাথে দেখা করতাম। নতুন বই এবং চকলেট ছাড়া আমাকে তাঁর জন্য কোনও ব্যয়বহুল উপহার না কিনতে বলে দিত। কিছু দিন পরে, তিনি বই সম্পর্কে তাঁর চিন্তা ভাগ করে নেওয়ার জন্য আমাকে কল করতেন। স্যার ফোন না করতে পারলে আমাকে ইমেল করতেন। আমি বিদেশ থেকে নতুন বই কিনে নতুন বই এবং চকলেট সাথে নিয়ে স্যারের সাথে দেখা করতাম …- আমার বাবার কাছ থেকে স্বপ্ন, প্রত্যাশার আশা, জীবনযাপনের ইতিহাস, আমার জীবন, মঙ্গলবার মরিস নিয়ে, সিদ্ধান্তের পয়েন্টগুলি , Modern Jurisprudence ইত্যাদি। স্যারের আত্মজীবনী এবং ইতিহাসের প্রতি এক অনন্য আগ্রহ ছিল। তিনি আমার সাথে তাঁর পিতা, তাঁর পরিবার এবং বাংলাদেশের ইতিহাস এবং বিশ্ব ইতিহাস সম্পর্কে কথা বলতেন। আমি তাঁর পিতা এবং আইনী শিক্ষা সম্পর্কে তাঁর স্বপ্ন নিয়ে একটি বই লিখতে অনুরোধ করেছিলাম । তিনি তাঁর বাবার উপর বই লিখেছিলেন এবং আইন কমিশনে তাঁর সময় এবং বাংলাদেশে আইনী সংস্কার সম্পর্কে একটি বই লিখেছিলেন এবং আমাকে এই বইগুলো উপহার দিয়েছিলেন। আমি তাঁকে বলেছিলাম আমি তাঁর সম্পর্কে একটি বই লিখতে চাই, যা আমি তাঁর জীবদ্দশায় লিখতে পারি নি। আন্তর্জাতিক আইন নিয়ে তাঁর রচিত বইটি বাংলা লাঙ্গুয়েজে এখনো পর্যন্ত সেরা বাংলা আইন বই। তিনি তত্ত্ব, অনুশীলন এবং সামাজিক ন্যায়বিচারের এক অনন্য সমন্বয় করে বাংলাদেশে আইনী শিক্ষার জগতে একটি অনন্য শৈলীর বিকাশের চেষ্টা করেছিলেন।

অধ্যাপক আনিসুর রহমান (যিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগে স্যার এর সরাসরি শিক্ষক ছিলেন) রচিত একটি বই নিয়েছিলাম তখন স্যার খুব খুশি হন। স্যার রাশিয়া যাওয়ার আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর Economics বিভাগের ছাত্র ছিলেন।আমি তাঁকে একটি বই উপহার দিয়েছিলাম, যা পরে তাঁর প্রিয় বইতে পরিণত হয়েছিল-যে পথে যেতে যেতে……..( দিলাম শুধু উপহার )। তিনি সারা জীবন আমাদের উপহার দিয়েছিলেন কিন্তু কিছুই নেন নি। তাঁর উপহার, তাঁর উত্তরাধিকার দীর্ঘকাল ধরে আমাদের আইনী অঙ্গনে আলোকিত করবে। আমরা তাঁর কাছ থেকে এত কিছু নিয়েছি, আমরা কি তাঁর প্রতিশ্রুতি পূর্ণ করেছি? আমাদের আইনী শিক্ষায় তিনিই ছিলেন, যার স্বপ্ন, প্রজ্ঞা, আবেগ এবং সহানুভূতি ছিল।

আমরা আমাদের স্যার অধ্যাপক শাহ আলমের জন্য প্রার্থনা করি। তিনি বাংলাদেশের এই বা সম্ভবত যে কোনও প্রজন্মের সর্বাধিক পরিচিত, মানবিক এবং সবচেয়ে রেস্পেক্টেড -আইনী শিক্ষক ছিলেন। তাঁর অনুপস্থিতি কখনই পূর্ণ হতে পারে না।

লেখক: সহযোগী অধ্যাপক, স্টকহোম ইউনির্ভাসিটি, সুইডেন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category