• রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৫০ পূর্বাহ্ন

চান্দিনায় গৃহবধূর মুখে বিষ দিয়ে হত্যার অভিযোগ !

/ ২৯৭ বার পঠিত
আপডেট: বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২০

সাইফুল ইসলাম ফয়সাল:- কুমিল্লা চান্দিনায় এক গৃহবধূকে মুখে বিষ দিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানাযায় চান্দিনা উপজেলার বরকইট ইউনিয়নের খিরাসার মোহনপুর গ্রামের হাজি বাড়ির মৃত মনির হোসেনের মেয়ে আমেনাকে একই ইউনিয়নের বড়কইট গ্রামের মৃত ঃ হারুনর রশিদের ছেলে প্রবাসী আলী আহম্মদের সঙ্গে নেয় বছর পূর্বে সামাজিক ভাবে বিয়ে হয়।বিয়ের পর থেকে ভিবিন্ন সময় শাশুড়ী ও ননশ যৌতুকের জন্য মারধর করত আমেনাকে।মেয়ের শুখের কথা চিন্তা করে গরিব অসহায় মা ও ছোট ভাইয়েরা আমেনার শশুর বাড়িতে  নগদ টাকা ও ঘরের আসবাবপত্র দেয়  । আমেনা স্বামী আহম্মদ বিদেশ জাওয়ার সময় ও আমেনা তার পরিবারের কাছ থেকে নগদ টাকা ধার এনে দেয়।
আমেনার স্বামী বিদেশ পাড়ি জমালে শাশুড়ী ও ননশের অত্যচারের মাত্রা আরো বেরে যায়।আমেনা এ বিষয় তার স্বামীকে জানালে তাকে বাবার বাড়িতে বসবাস করতে বললেও আমেনা শশুর বাড়িতেই থাকবে বলে জানায় তার স্বামীকে। গত ৪ আগষ্ট মঙ্গলবার বিকাল বেলা আমেনাকে তার শাশুড়ী ও ননশ বেধর মারধর করে আমেনা গেয়ান হারিয়ে ফেললে তার মুখে বিষ ঢেলে দেয় এমনটা জানায় আমেনার মেয়ে আফরোজা আক্তার  (৮), আফরোজা তার নানার বাড়িতে মোবাইল ফোনে তার মামা আলামিনকে ঘটানার বিষয়টি জানালে আলামিন ও তার আত্মীয় স্বজনরা এসে মুমূর্ষু অবস্থায় আমেনাকে স্থানীয় উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করায়।পরে রোগির অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে  আমেনার মিত্যু হয়।
নিহতের পরিবারের দাবি আমেনাকে যৌতুকের জন্য শশুর বাড়ির লোকজন বিষ মুখে দিয়ে হত্যা করেছে। নিহত আমেনার ভাই আলামিন বলেন আমার বোনকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে, আমি আমার বোনের হত্যার বিচার দাবি করছি।আমরা খুব শিঘ্রহী আদালতে হত্যা মামলা করবো।এ বিষয় চান্দিনা থানার এস আই নোমান মুঠোফোনে জানান বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করার খবর শুনে আমরা লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছি এ বিষয় একটি অপমিত্যু মামলা হয়েছে।
এ বিষয় স্থানীয় চেয়ারম্যান হাসেম মোবাইল ফোনে জানান আমি দুই পক্ষকে সমাধানের জন্য বলেছি কিন্ত সমাধান করা সম্ভব হয়নি। পুলিশ লাশ হস্তান্তরের পর  দাফনের জন্য স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বারকে পাঠিয়েছি। ঘটনার পর থেকে শাশুড়ী ও ননশ পলাতক রয়েছে।এ বিষয় স্থানীয় জসিম মিয়া জানান আমেনার উপর বিভিন্ন সময় শাশুড়ী ও ননশ অত্যাচার করত। এলাকাবাসী এমন পরিকল্পিত হত্যার ন্যায় বিচার দাবি করে।


আরো পড়ুন