• সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৩০ পূর্বাহ্ন

কুমিল্লায় ৫২ কেজি গাঁজাসহ ০৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

/ ৭৯ বার পঠিত
আপডেট: বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধি:
গত ২১/০২/২০২৪ইং তারিখ সন্ধ্যা ০৬.৫৫ ঘটিকায় চৌদ্দগ্রাম থানায় কর্মরত এসআই মোঃ মেহেদী হাসান, এএসআই মোঃ হারুন অর রশিদ, এএসআই মোঃ এমরান ভুইয়া, এএসআই মোঃ নাজমুল হাসানসহ সঙ্গীয় ফোর্সদের নিয়ে চৌদ্দগ্রাম থানা এলাকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চৌদ্দগ্রাম থানাধীন ০৬ নং ঘোলপাশা ইউনিয়নের আমানগন্ডা নামক স্থানে আমানগন্ডা তাকিয়া আমগাছ কবরস্থানের সামনে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্নে ০১ জন ব্যক্তি ০১ টি APACHE RTR 4V মোটরসাইকেল সহ গাড়ীর জন্য অপেক্ষা করতেছে এবং অপর ০২ জন ব্যক্তি আমানগন্ডা তাকিয়া আমগাছ কবরস্থানের পাশে গাঁজার বস্তাসহ লুকিয়ে আছে।

অতঃপর পুলিশের উপস্থিতি বুঝতে পেরে মোটরসাইকেলে থাকা ব্যক্তি মোটরসাইকেল চালিয়ে পালানোর চেষ্টাকালে অফিসার ও ফোর্সের সহায়তায় মোটরসাইকেল সহ আসামী ১/ মোঃ বিজয় (১৮), পিতা: সালেক মিয়া, মাতা: সাহেদা আক্তার, সাং: কাশিপুর, ইউপি: রতনপুর, থানা: হবিগঞ্জ, জেলা: হবিগঞ্জ, বর্তমান সাং: বালিনা, ইউপি: দুলালপুর, থানা: ব্রাহ্মনপাড়া, জেলা: কুমিল্লাকে আটক করেন এবং অপর ০২ জন ব্যক্তি কবরস্থানের পাশে ০৩টি বস্তা ফেলে দৌড়ে পালানোর চেষ্টাকালে আসামী ০২/ মোঃ ছালাউদ্দিন (২৪), পিতা: আব্দুল মতিন, মাতা: রিজিয়া বেগম, সাং: বালিনা, ইউপি দুলালপুর, থানা: ব্রাহ্মনপাড়া, জেলা: কুমিল্লা। ০৩/ মোঃ সাদেক মিয়া (২০), পিতা: মোঃ মজিদ আলী, মাতা: মোছাঃ রহিমা বেগম, সাং: কাশিপুর, ইউপি রতনপুর, থানা: হবিগঞ্জ, জেলা: হবিগঞ্জ, বর্তমান সাং: বালিনা, ইউপি দুলালপুর, থানা: ব্রাহ্মনপাড়া, জেলা: কুমিল্লাদ্বয়কে আটক করেন।

পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের মোকাবেলায় ০৩টি প্লাস্টিকের বস্তার ভিতর খাকী স্কচটেপ দ্বারা মোড়ানো সর্বমোট (২০+২০+১২)= ৫২ (বায়ান্ন) কেজি গাঁজা ও মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত ০১টি APACHE RTR 4V উদ্ধার পূর্বক জব্দ তালিকা মূলে জব্দ করেন।


উক্ত ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানায় এজাহার দায়ের করলে চৌদ্দগ্রাম থানার মামলা নং-৩৩, তারিখ-২১/০২/২০২৪, ধারা-২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৬(১) সারণির ১৯(গ)/৩৮/৪১ রুজু করা হয়।
উল্লেখ্য যে, গ্রেফতারকৃত ২নং আসামী মোঃ ছালাউদ্দিন (২৪) এর বিরুদ্ধে পূর্বের ০৩ টি মাদক মামলা ও ৩নং আসামী মোঃ সাদেক মিয়া (২০) এর বিরুদ্ধে ০২ টি মাদক মামলা বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।


আরো পড়ুন