• মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৫০ অপরাহ্ন

কুয়াকাটায় স্বামী-স্ত্রীর গলায় ফাঁস দেয়া লাশ উদ্ধার করেন মহিপুর পুলিশ

/ ৪০ বার পঠিত
আপডেট: বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

মোঃ মেহেদী হাসান সোহাগ, কলাপাড়া,কুয়াকাটা-প্রতিনিধি:
কুয়াকাটায় একই ঘর থেকে আরিফ হোসেন (২৫)ও তার স্ত্রীর রিয়া মনি ( ২২) এর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারি ) দিবাগত রাত ১টার দিকে লতাচাপলি ইউপির ৭ নং ওয়ার্ড এর পশ্চিম আসালত খাঁ পাড়া থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করা হয়। মৃত আরিফ হোসেনের বাবার নাম আলী হোসেনের ।

স্থানীয়রা জানান, আরিফ পেশায় একজন ফটোগ্রাফার। তিনি কুয়াকাটায় পর্যটকদের ছবি তুলে রোজগার করতেন। তার বাবা-মা দুজনে ঢাকায় থাকেন। কিছুদিন আগে জমি কিনে এখানে ঘর তৈরি করেন আরিফ। স্বামী স্ত্রী দুজনে দুপুরে তার মিস্ত্রিপাড়া আত্মীয় বাড়ি থেকে দাওয়াত খেয়ে আসেন। কি নিয়ে কি হয়েছে তেমন কোন কিছু কেউ বলতে পারেনি। তবে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়েছিল বলে শুনেছেন প্রতিবেশীরা। রাত ১২টার দিকে এ দম্পত্তির একমাত্র শিশু কন্যার কান্নার আওয়াজ শুনে ঐ বাড়িতে যায় স্বজনরা। পরে রিয়া এবং আরিফকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান তারা। এসময় শিশু সুমাইয়া বাবার ঝুলন্ত মরদেহের দিকে তাকিয়ে কাঁদছিল।

মৃত আরিফের ভাগ্নে খাইরুল জানান, তিনি গিয়ে তার মামাকে ঘরে এবং মামানিকে বারান্দায় ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। মহিপুর থানার ওসি আনোয়ার তালুকদার বলেন, খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। রিপোর্ট লেখার আগ পর্যন্ত লাশ মহিপুর থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরাদেহ দুটি পটুয়াখালী মর্গে পাঠানো হবে।


আরো পড়ুন