• বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:২৭ পূর্বাহ্ন

আদমদীঘিতে সড়ক দুর্ঘটনা বাড়ি ফেরা হলো না শিশু শিক্ষার্থী আরমিনের

/ ৬৪ বার পঠিত
আপডেট: বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

হুমায়ূন আহমেদ, আদমদিঘী বগুড়া প্রতিনিধি:
বগুড়ার আদমদীঘিতে চার্জারচালিত অটোভ্যানের পেছনে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় আরমিন (৮) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। আজ ২০/০২/২০২৪ইং তারিখ মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে আদমদীঘি উপজেলা হাসপাতাল ও উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন মাঝ বরাবর এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত শিশু আদমদিঘী উপজেলার সুদিন গ্রামের ইউসুফ আলীর মেয়ে।


পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে শিশু নিকেতন বিদ্যালয়ের বেবী শ্রেণির শিক্ষার্থী আরমিন তার মা রাবেয়া সুলতানার সঙ্গে চার্জারচালিত অটোভ্যানে করে বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে নিজের নাম তালিকাভুক্ত করতে যাচ্ছিল নিজ স্কুলে। এ সময় তারা বগুড়া-নওগাঁ আঞ্চলিক মহাসড়কের উপজেলা পরিষদ পার হয়ে রেজিস্ট্রি অফিস রোডে মোড় ঘুরতে গেলে তালোড়া থেকে আসা তিনজন আরোহী নিয়ে একটি মোটরসাইকেল তাদের অটোভ্যান কে পেছনে ধাক্কা দেয়।

আরমিন ভ্যান থেকে পড়ে যায়, ভ্যান উল্টে গিয়ে আরমিনের শরীরের উপরে আছড়ে পরে, এতে আরমিন মাথায় প্রচণ্ড আঘাত পায় এবং মোটরসাইকেলে থাকা তিন আরোহী গাড়ি থেকে পড়ে গিয়ে আহত হন। আশেপাশের স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে আদমদিঘী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশু আরমিনকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাকিদেরকে হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়। আদমদীঘি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজেশ কুমার চক্রবর্তী সাথে যোগাযোগ করলে আমাদেরকে রিপোর্টারকে জানান, খবর পেয়ে, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। নিহত শিশুর লাশ সুদিন গ্রামের বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে, মোটরসাইকেল ও ভ্যান উদ্ধার করে আদমদিঘী থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। এই ঘটনায় আইনি প্রক্রিয়া কাজ চলছে।


আরো পড়ুন