• বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০২:০৮ পূর্বাহ্ন

পুলিশের কাজে বাঁধা ও হত্যার উদ্দ্যেশ্যে হামলা নাশকতার মামলায় গ্রেফতার ০৪

/ ৩৭ বার পঠিত
আপডেট: শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২৩

গত ২৩ নভেম্বর ২০২৩ ইং তারিখ রাতে র‍্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজধানীর ডেমরা, কোতয়ালী, বংশাল ও লালবাগ এলাকায় একাধিক অভিযান পরিচালনা করে।

উক্ত অভিযানে হবিগঞ্জ জেলার লাখাই থানার মামলা নং-০২, তারিখ-০৮/১১/২০২৩ ইং; ধারা-১৯০৮ সনের বিস্ফোরক দ্রব্য আইনের ৩/৪ তৎসহ দন্ডবিধি আইনের ১৪৩/১৮৫/৩০৭/৩৫৩/১১৪/৩৪; মামলার এজাহারভুক্ত পলাতক আসামী ১। শাহ্ আলম গোলাপ (৪৫), পিতা-মৃত কটু মিয়া, সাং-বামৈ পূর্বগ্রাম, থানা-লাখাই, জেলা-হবিগঞ্জ ২। মোঃ শামছুল ইসলাম (৪৬), পিতা-মোঃ আব্দুল ওয়াহিদ, সাং-মানপুর, থানা-লাখাই, জেলা-হবিগঞ্জ এবং লালবাগ থানার মামলা নং-৩৬, তারিখ – ২৫/০৫/২০২৩ খ্রিঃ ধারা- ১৪৩/৩২৩/৩২৫/৩০৭/৫০৬/১১৪ পেনাল কোড ১৮৬০ তৎসহ ৩/৪/৬ বিস্ফোরক দ্রব্য আইন ১৯০৮; মামলার এজাহারভুক্ত পলাতক আসামী ৩। দপ্তর সম্পাদক, ২৪ নং ওয়ার্ড, লালবাগ থানা বিএনপি মোহাম্মদ রাহাতুল ইসলাম (৫৫), পিতা: মৃত হাজী নুরুল ইসলাম, সাং- ৪২/৪, রাজনারায়ণ ধর সড়ক, থানাঃ লালবাগ, ঢাকা এবং ডিএমপি ঢাকার যাত্রাবাড়ী থানার মামলা নং-৯৮(১০)২০২৩, ধারা- ০৩, ১৯০৮ সালের বিস্ফোরক দ্রব্য আইন তৎসহ ধারা- ১৪৩/১৪৭/১৪৮/১৪৯/১৮৬/৩৩২/৩৫৩/১০৮; পেনাল কোড ১৮৬০; মামলার তদন্তে প্রাপ্ত পলাতক আসামী ৪। জিন্নাতুল ইসলাম মজুমদার (৪৪), পিতা- মৃত মাহফুজুর রহমান, সাং- নোয়াপুর,থানা- পরশুরাম, জেলা-ফেনীসহ মোট ০৪ জন আসামি’কে গ্রেফতার করে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে, গ্রেফতারকৃত আসামী বিভিন্ন সময় নাশকতার পরিকল্পনার সাথে তাদের সম্পৃক্ততার সত্যতা স্বীকার করেছে। এছাড়াও তারা ইতোপূর্বে রাজধানীর ডেমরা, কোতয়ালী, বংশাল ও লালবাগ এলাকায় গাড়ী ভাংচুর, বাসে অগ্নি সংযোগসহ বিভিন্ন প্রকার নাশকতা মূলক কার্যক্রমের সাথে সরাসরি জড়িত ছিল বলে জানা যায়। গ্রেফতারকৃত আসামীদের সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।


আরো পড়ুন