• রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৭:৩৯ পূর্বাহ্ন
Headline
”চন্দনাইশে বিএমএসএফ আহবায়ক কমিটি গঠন” ”বিএমএসএফের কেন্দ্রীয় চতুর্থ কাউন্সিলের তারিখ ঘোষণা” অন্যতম একটি ব্রিজের জন্য গলাচিপা উপজেলায় জনগণের ভোগান্তির শেষ নেই ! উদযাপিত হলো ইচ্ছা মানব উন্নয়ন সংস্থার ৬ষ্ঠ বর্ষপূর্তি ও স্বেচ্ছাসেবী মিলনমেলা-২০ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বপ্ন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সাদুল্যাপুর উপজেলার গৃহহীন মানুষদের সন্ধানে মাঠে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও ইউএনও কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২ তরুণ সংগঠক নিহত, আহত ১ শ্রীনগর পুরাতন ফেরীঘাট ফুটওভার ব্রীজের দাবীতে মানববন্ধন! ঢাকায় মাদ্রাসা ছাত্রদের উপর পুলিশের হামলা ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিক্ষোভ! ইসলামী আন্দোলনের আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীর দোয়া ও সহযোগিতা কামনা কুমিল্লায় ভারতীয় শাড়ী পাচারকালে ৭জন গ্রেফতার

হাটহাজারী’র কৃতি সন্তান কলামিস্ট জাহাঙ্গীর আর নেই

Reporter Name / ৪৪ Time View
Update : বুধবার, ১০ জুলাই, ২০১৯

হাটহাজারী’র কৃতিআব্দুল করিম চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধি:- চট্টগ্রামেরের হাটহাজারী’র কৃতি সন্তান লেখক, সাংবাদিক ও নোবেল বিজয়ী ড. ইউনুসের আপন ভাই মুহম্মদ জাহাঙ্গীর (৬৫)আর নেই। মঙ্গলবার দিবাগত রাত পৌনে ১টায় তিনি ঢাকার গেণ্ডারিয়ার আসগর আলী হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেছেন। (ইন্নালিল্লাহে ওয়াইন্না ইলাইহে রাজিউন)। তিনি দীর্ঘদিন মরণব্যাধি ক্যান্সারে ভোগছিলেন।

তার কর্মজীবনে, চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী উপজেলা জোবরা গ্রামে ১৯৫১ সালে জম্ম গ্রহন করেন মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর। কর্মজীবনে তিনি ২৫ টি বইয়ের রচয়িতা। তার বেশিরভাগই সাংবাদিকতা নির্ভর।

তিনি মিডিয়া বিষয়ক একজন লেখক হিসেবে বাংলাদেশে সুপরিচিত। এ ছাড়াও রাজনীতি ও বিভিন্ন সমসাময়িক বিষয়ে সংবাদপত্রে নিয়মিত কলাম লিখেন। নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গির কারনে তিনি সকলের কাছে একজন গ্রহণযোগ্য ব্যক্তি হয়ে উঠেন। ঢাকার জাতীয় দৈনিক প্রথম আলাে’ ও চট্টগ্রামের দৈনিক ‘আজাদীতে তিনি নিয়মিত লিখে থাকেন। চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে তার জম্ম। তিনি চট্টগ্রাম কলেজ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় তিনি সক্রিয় ছাত্র রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর ১৯৭০ সালে দৈনিক পাকিস্তানে সাংবাদিকতা পেশায় যোগ দেন। ১৯৮০ সালে তিনি সক্রিয় সাংবাদিকতা ছেড়ে প্রেস ইনষ্টিটিউট অব বাংলাদেশ-এ সাংবাদিক প্রশিক্ষক হিসেবে নিযুক্ত হন।

১৯৯৫ সালে তিনি সেন্টার ফর ডেভলপমেন্ট কম্যুনিকেশন নামে একটি বেসরকারি মিডিয়া সংস্থা গঠন করে এর নির্বাহী পরিচালকর দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তিনি ১৯৬৮ সাল থেকে বেতার ও ১৯৭৬ সাল থেকে টিভি মিডিয়ার সঙ্গে জড়িত। চলতি বিষয়ধর্মী টক শাের সফল মডারেটর হিসেবে তিনি বিশেষ পরিচিতি অর্জন করেছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে অনার্সসহ এম এ ও সাংবাদিকতায় এম এ ডিগ্রী লাভ করেছেন। তিনি ঢাকার ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস (ইউল্যাব) এর মিডিয়া স্টাডিজ এ্যান্ড জানালিজম বিভাগের খন্ডকালীন অধ্যাপক। সাংবাদিকতা, গণমাধ্যম, রাজনীতি ও অন্যান্য বিষয়ে তার লেখা ও সম্পাদিত বইয়ের সংখ্যা সাতাশটি।

এ মহান ব্যক্তির মৃত্যুতে সাংবাদিক জগতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন চট্টগ্রাম রিপোটার্স ফোরামের সভাপতি ও চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাবেক সহ সভাপতি কাজী আবুল মনসুর ও হাটহাজারী অনলাইন প্রেসক্লাব।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category