• বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:১১ অপরাহ্ন

ভুয়া নিবন্ধন ও ঘুষে চাকরি, কলেজ শিক্ষক কারাগারে

/ ১১১ বার পঠিত
আপডেট: বৃহস্পতিবার, ২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩

ভুয়া নিবন্ধন দিয়ে চাকরি ও সরকারি সম্পত্তির ক্ষতিসাধনের অভিযোগে বড়দল আফতাব উদ্দিন স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রভাষক শিবপদ সাহাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। বুধবার (১ ফেব্রুয়ারি) খুলনা মহানগর দায়রা জজ বিশেষ আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে বিচারক জামিন না-মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠান।

জানা যায়, সাতক্ষীরা আশাশুনি বড়দল আফতাব উদ্দিন স্কুল অ্যান্ড কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলীর সঙ্গে যোগসাজসে ভুয়া নিবন্ধনে শিবপদ সাহা ওই প্রতিষ্ঠানে ২০০২ সালে চাকরি পান। এ ঘটনায় সাতক্ষীরার তালা কুমিরা মহিলা ডিগ্রি কলেজে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক অনিত ব্যানার্জী আদালতে শিবপদ সাহার বিরুদ্ধে জাল নিবন্ধন তৈরি ও ঘুষের বিনিময়ে চাকরি নেওয়ার অভিযোগ করেন।

পরবর্তীতে দুদক ঘটনার তদন্তে প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ায় খুলনা জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শাওন মিয়া বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

আইনজীবী খন্দকার মজিবর রহমান জানান, শিক্ষক নিবন্ধন না থাকায় জাল নিবন্ধন দিয়ে শিবপদ সাহা ২০০২ সালে অনার্স পাসের ভিত্তিতে ওই প্রতিষ্ঠানে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। পরে মাস্টার্স পাশ করার পর ২০০৫ সালে একই প্রতিষ্ঠানে তাকে পুনরায় নিয়োগ দেখানো হয়।


আরো পড়ুন