• বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:৫৭ পূর্বাহ্ন

মামলা তুলে না নেওয়ায় বাদী’র উপর হামলা!

/ ৩৪৮ বার পঠিত
আপডেট: রবিবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২৩

মামুন মিঞা, ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি:
ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার তালমা ইউনিয়নের বড়মানিকদি গ্রামে মামলা তুলে না নেওয়ায় মামলার বাদী রোকেয়া বেগমের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে মারপিট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

২৮ জানুয়ারী শনিবার সকালে আসামীরা বাদীর উপর হামলা করে বলে ভুক্তভোগী সহ তার পরিবারর লোকজন জানান।

পূর্বে থেকেই বড়মানিকদী গ্রামের বিল্লাল সেক এর পরিবার একই গ্রামের সেকেন মাতুব্বর এর পরিবারের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই ছিলো দ্বিধা-দ্বন্দ্ব।

তারই ধারাবাহিকতায় গত ৮/১/২২তারিখে জমিজমা নিয়ে বড়মানিকদি গ্রামের বিল্লাল শেখের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে মারপিট করে এবং একটি পা’ ভেঙ্গে দেওয়ার ঘটনায় বিল্লাল শেখ এর স্ত্রী রোকেয়া বেগম(৬০) বাদী হয়ে নগরকান্দা থানায় একটি মামলা করেন।

মামলা নং ১৫ তারিখ ০৮/০১/২২ খ্রীঃ ধারা ১৪৩/৩২৩/৩২৬/৩২৫/৩০৭/৩৫৪/৩৪১/১১৪।
আসামীরা হলেন ১।সেকেন মাতুব্বর (৬০)পিং মৃত্যু আলফু মাতুব্বর ২।ওবায়দুর মাতুব্বর (৪৫)পিং রমজান মাতুব্বর ৩।হুমায়ুন মাতুব্বর (৪৫), টুকু মাতুব্বর পিং বাবর আলী মাতুব্বর ৫।আরিফ মাতুব্বর (৩০)পিং সেকেন মাতুব্বর ৬।মনিরুজ্জামান শেখ (৩৫)পিং মৃত্যু আদেল উদ্দিন ৭। মিরান শেখ (৩২) পিং আত্তাপ সর্ব সাকিন বড়মানিকদি থানা নগরকান্দা জেলা ফরিদপুর। ৭(সাত) জনকে আসামী করে মামলা করেন।

মামলাটি সিআইডি তদন্ত শেষে বিচারাধীন রয়েছে বলে বিল্লাল শেখ উল্লেখ করেন।তিনি আরও বলেন আসামিগন বার বার মামলা তুলে নিতে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছে।

২৮ জানুয়ারী শনিবার সকাল ১০ টার সময় আমার স্ত্রী রোকেয়া বেগম, মেয়ে ও নাতিন ডাক্তার দেখাতে তালমা বাজার ব্রীজের উপর পৌছালে সেখানে ওতপেতে থাকা আসামী আরিফ মাতুব্বর, ওবায়দুর মাতুব্বর, নাজমুল মাতুব্বর, হুমায়ুন মাতুব্বর তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে মারপিট করে আহত করে।

আমার স্ত্রী রোকেয়া বেগমকে নগরকান্দা হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করলে সেখান থেকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে। ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আহত রোকেয়া বেগম চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বিল্লাল শেখ আরও বলেন, মারপিট করার সময় তার মেয়ের গলায় থাকা ৮ আনা ওজনের স্বর্নের চেইন ছিড়ে নিয়ে যায় এবং আমার ছেলে রাকিব কে মারার জন্য ধাওয়া দেয়।

ঘটনায় অভিযুক্ত আরিফ মাতুব্বর বলেন রোকেয়া বেগমকে একটা থাপ্পড় দিয়েছি তবে সোনার চেইন আনি নাই। আহত রোকেয়া বেগমের স্বামী বিল্লাল শেখ থানায় মামলা করবেন বলে জানান।


আরো পড়ুন