• বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:২৫ অপরাহ্ন

এবার সাত্তারের নির্বাচনি সভায় আ.লীগের দুই সংসদ সদস্য

/ ২২ বার পঠিত
আপডেট: বুধবার, ২৫ জানুয়ারি, ২০২৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনের উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক এমপি ও বিএনপি থেকে বহিষ্কার হওয়া উকিল আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়ার পক্ষে প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্যরা।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরাইলে অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম মিলনায়তনে উকিল আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া সমর্থক গোষ্ঠীর ব্যানারে এক কর্মী সভায় অংশগ্রহণ করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি এবং সংরক্ষিত আসনের এমপি উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম (শিউলি আজাদ)।

সভায় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি হেলাল উদ্দিন, সহসভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজমুল হোসেন, জেলা যুবলীগের সভাপতি শাহানূর ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম ফেরদৌস, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল, সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভনসহ জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়াও উপনির্বাচনে মনোনয়ন দাখিল করার পর প্রত্যাহার করা আওয়ামী লীগের তিন নেতা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুল বারী চৌধুরী মন্টু, সাবেক যুগ্ম-সম্পাদক মঈন উদ্দিন মঈন ও স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ নেতা শাহজাহান আলম সাজু উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় সংসদ সদস্য উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বলেন, আমি অন্তঃস্থল থেকে উকিল আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়াকে সমর্থন করি। একজন সাহসী মানুষ হিসেবে যিনি তারেক রহমানের সকল ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় এই পড়ন্ত বয়সেও শিরদাঁড়া শক্ত করে মাথা উঁচু করে তিনি ঘোষণা দিয়ে এসেছেন। আশা করি, আগামী ১ ফেব্রুয়ারি সরাইল-আশুগঞ্জের মানুষ ভোটকেন্দ্রে গিয়ে কলার ছড়া মার্কায় ভোট দিয়ে ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে দাঁতভাঙা জবাব দেবেন এবং গণতন্ত্রের বিজয় ঘোষণা করবেন।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির দলীয় প্রার্থী আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া বিজয়ী হয়েছিলেন। গত ১১ ডিসেম্বর আব্দুস সাত্তার জাতীয় সংসদ থেকে পদত্যাগ করায় আসনটি শূন্য হয়। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি এ আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আব্দুস সাত্তারের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন জাতীয় পার্টির আব্দুল হামিদ ভাসানী, জাকের পার্টির জহিরুল ইসলাম জুয়েল ও আশুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি আবু আসিফ আহমেদ।

এর আগে এই আসনে ৫ বার এমপি ছিলেন আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া।


আরো পড়ুন