• রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৩২ অপরাহ্ন

‘ফারাজ’ নিয়ে অবিন্তার মায়ের আকুতি আমলে নিয়েছে দিল্লি হাইকোর্ট!

/ ২৯ বার পঠিত
আপডেট: সোমবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০২৩

সাত বছর আগে (১ জুলাই, ২০১৬) রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলায় নিহত ২২ জনের একজন অবিন্তা কবির। সেই ট্যাজেডি নিয়ে নির্মিত বলিউড সিনেমা ‘ফারাজ’-এর মুক্তি নিয়ে আপত্তি তুলেছেন অবিন্তার মা রুবা আহমেদ। সিনেমাটির মুক্তি ঠেকাতে দিল্লিতে মামলা করেছেন তিনি। বর্তমানে তা চলমান রয়েছে।

এ অবস্থায় অবিন্তার মায়ের সঙ্গে আলোচনায় বসতে পারে ‘ফারাজ’ এর নির্মাতারা। এমনটাই ধারণা করছেন স্থানীয় আইনজীবীরা। ভারতের হাইকোর্টে এ মামলার পরবর্তী শুনানি হবে ২৪ জানুয়ারি।

মামলার শুনানিতে দিল্লি হাইকোর্টে বিচারপতি সিদ্ধান্ত মৃদুল ও তালওয়ান্ত সিংয়ের ডিভিশন বেঞ্চ ‘ফারাজ’ এর পরিচালক হানসাল মেহতারের আইনজীবীর উদ্দেশে বলেন, এভাবে মুনাফা করবেন না, কারও শোককে কাজে লাগিয়ে আপনারা এভাবে মুনাফা করতে পারেন না। যেকোনও শুভ বুদ্ধিসম্পন্ন মানুষই কিন্তু এ কথা বলবেন। দয়া করে আপনারা একসঙ্গে বসে কথা বলুন। আমরা আবেদনকারীদের বলতে পারি আপনাদের সঙ্গে বসে বিষয়টা মিটিয়ে নিতে। আমরা নিশ্চিত নই আইন আমাদের এই ছবিটির মুক্তির ওপর স্থগিতাদেশ জারি করার অধিকার দেয় কিনা। কোর্ট কিন্তু সবসময়ই আপনাদের সংবেদনশীল হওয়ার কথা বলতে পারে।

অপর এক মন্তব্যে বিচারপতিরা বলেন, ওনাদের সঙ্গে কথা বললে তো কোনও ক্ষতি নেই। আমরা এখানে অধিকারের কথা বলছি না, বলছি একজন মায়ের অনুভূতিটা (সেন্টিমেন্ট) বোঝার কথা। ওনার সঙ্গে কথা বলুন। আমরা শুধু আপনাদের বলছি এই পথেও একবার চেষ্টা করতে, যদি পারেন সবাই একসঙ্গে বসে বিষয়টা মিটিয়ে নিন। আপনাদের পারা উচিত।

ঢাকার এক সংবাদ সম্মেলনে রুবা আহমেদ অভিযোগ করেন, বলিউড সিনেমা ‘ফারাজ’ বাস্তবতার ওপর তৈরি হয়নি। সিনেমাটি নির্মাণের আগে নিহত কারও পরিবারের অনুমতি নেওয়া হয়নি। এই সিনেমাটি মুক্তি পেলে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হতে পারে।

সন্তানহারা এই মায়ের আকুতি, সিনেমাটি মুক্তি দিয়ে যেন তাকে সেই বিভীষিকাময় রাতে (জঙ্গি হামলা) ফিরিয়ে না নেওয়া হয়। তার মেয়েকে যেন কারও ব্যবসার মূলধন হিসেবে ব্যবহার করা না হয়।

সংবাদ সম্মেলনের কয়েকদিন পরেই ‘ফারাজ’ এর পরিচালক হানসাল মেহতা ভারতের সিনেমা হলগুলোতে ছবিটি মুক্তি পাবে বলে ঘোষণা করেছে। এরই মধ্যে প্রকাশ করেছে ছবিটির ট্রেলারও।

হানসাল মেহতার পক্ষের আইনজীবী মালবিকা কপিলা কালরা একটি গণমাধ্যমকে জানান, এটুকু বলতে পারি, দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতিরা ছবির মুক্তির ওপর কোনও ইনজাংকশন দেননি। ফলে এখন পর্যন্ত সেটির মুক্তিতেও কোনও বাধা নেই। তবে মামলাটি বিচারাধীন থাকায় তিনি এর বেশি বক্তব্য দিতে রাজি হননি।

মামলার পরবর্তী শুনানি হবে মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি); ‘ফারাজ’ নিয়ে দিল্লি হাইকোর্টের চূড়ান্ত রায়ও সেদিনই জানা যেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

টি-সিরিজের ব্যানারে ‘ফারাজ’ সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন হানসাল মেহতা। আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি সিনেমাটি মুক্তির তারিখ চূড়ান্ত হয়েছে।


আরো পড়ুন