• রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১৪ পূর্বাহ্ন

” আশাশুনিতে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধুকে হত্যার অভিযোগ, স্বামী ও শ্বাশুড়ি আটক”

/ ৩৪৮ বার পঠিত
আপডেট: শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি::- সাতক্ষীরার আশাশুনির যৌতুকের দাবীতে ডুমুরপোতায় স্বামী ও শ্বাশুড়ি কর্তৃক স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার পর গালে বিষ ঢেলে আত্মহত্যা প্রচার দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আজ (২১ নভেম্বর )বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের ডুমুরপোতা গ্রাম থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করেছে এ ঘটনায় স্বামী প্রশান্ত সরকার ও শ্বাশুড়ি সবিতা সরকারকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত গৃহবধূর নাম স্বপ্না রানী মন্ডল (২০)। সে একই উপজেলার খাজরা ইউনিয়নের ফটিকখালী গ্রামের পরিমল মন্ডলের মেয়ে এবং ডুমুরপোতা গ্রামের মৃত সনাতন সরকারের ছেলে প্রশান্ত সরকারের স্ত্রী।

নিহত স্বপ্না রানী মন্ডলের কাকা শ্যামল কুমার মন্ডল জানান, যৌতুকের দাবীতে তার ভাইজি স্বপ্নাকে প্রায়ই নির্যাতন করতো তার স্বামী প্রশান্ত ও শ্বাশুড়ি সবিতা সরকার। এরই জের ধরে বুধবার রাতে তাকে মারপিট করে গুরুতর আহত করে। একপর্যায়ে বৃহস্পতিবার ভোরে সে মারা যাওয়ার পর তার মুখে বিষ ঢেলে আতহত্যা বলে প্রচার দেয়। তিনি আরো জানান, তার গায়ে মারপিটের একাধিক চিহ্ন রয়েছে।
আশাশুনি থানার ভাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস সালাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহত গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় ইতিমধ্যে নিহত গৃহবধূর স্বামী প্রশান্ত সরকার ও শ্বাশুড়ি সবিতা সরকারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।


আরো পড়ুন