• শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ০৬:০৫ পূর্বাহ্ন
Headline
করোনা ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট নিয়ে রিসার্চ হলে শেখ হাসিনার নাম সেখানে লেখা হবে: আ ক ম বাহাউদ্দীন বাহার গলাচিপার আমখোলায় বাস ও অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ১ মৃত ব্যক্তির পরিচয় পেতে শেয়ার করুন! কৃষি পুনর্বাসন ও প্রণোদনা কর্মসূচিতে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ। উজিরপুরে দক্ষিণ আহমেদ আলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নব নির্মিত ভবন উদ্বোধ! “টুঙ্গিপাড়া বঙ্গবন্ধুর সমাধি’তে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানান উত্তরা পূর্বথানা সেচ্ছাসেবক লীগ” পলাশ বাড়ীতে সরকারী খাদ্য ধান ও চাউল ক্রয়ের মূল্য নির্ধারণ, উদ্বোধন অনুষ্ঠান। রংপুরে  সিন্ডিকেটের নিয়ন্ত্রণে থাকা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ,সড়ক প্রশস্তকরণ ও ড্রেন পুন:নির্মাণের দাবিতে “ঝালকাঠি নাগরিক ফোরামের উদ্যোগে করোনারোধে মাক্স ও লিফলেট বিতরণ” মালিকানাধীন ভূমির অধিকার ফিরে পেতে গৃহবধূর সংবাদ সম্মেলন! সাংবাদিকদের দাবী ও অধিকার রক্ষায় ১৪ দফার বিকল্প নেই: বিএমএসএফ

দশজনের দল নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হলো ব্রাজিল।

Reporter Name / ৫৩ Time View
Update : সোমবার, ৮ জুলাই, ২০১৯

কোপা আমেরিকার ৪৬তম আসরের ফাইনাল ম্যাচে রবিবার পেরুকে ৩-১ গোলে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে দানি আলভেজ-কুতিনহো-ফিরমিনো-জেসুসরা। এই ম্যাচে একটি অ্যাসিস্ট এবং একটি গোল করলেও পরে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন ব্রাজিল তারকা গ্যাব্রিয়েল জেসুস।
কোপা আমেরিকার ইতিহাসে এই নবমবারের মতো শিরোপা ঘরে তুলল ব্রাজিল। এর আগে সর্বশেষ ২০০৭ সালে তারা শিরোপা জিতেছিল। ১২ বছর পর ফাইনালে উঠে আবার তারা শিরোপার দেখা পেল। কোপা আমেরিকায় মোট ২০ বার ফাইনাল খেলে ব্রাজিল ৯ বার শিরোপা জিতেছে ও ১১ বার রানার্স আপ হয়েছে।
অন্যদিকে, পেরু এবার তৃতীয়বারের মতো ফাইনাল খেলল। এর আগে দুইবার ফাইনাল খেলে দুইবারই চ্যাম্পিয়ন হয় তারা। তবে, এবার রানার্স আপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হলো তাদের। ১৯৭৫ সালের পর এই প্রথম ফাইনাল খেলল পেরু।  
এদিন মারাকানা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে ১৫তম মিনিটে এভারটনের গোলে ব্রাজিল এগিয়ে যায়। জেসুসের ক্রস থেকে নিপুণ দক্ষতায় বল জালে পাঠান তিনি। ৩৬তম মিনিটে ব্রাজিল ব্যবধান বাড়তে পারতো। কিন্তু ফিরমিনোর হেডে বল গোলবারের উপর দিয়ে চলে যায়।
৪৪তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে পেরুকে সমতায় ফেরান পাওলো গুয়েরেরো। থিয়াগো সিলভার হ্যান্ড বলের সুবাদে পেনাল্টি পায় পেরু। ডি-বক্সের মধ্যে ব্রাজিল ডিফেন্ডার থিয়াগো সিলভার হাতে বল লাগায় রেফারি ভিএআরের সাহায্য নিয়ে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন। অবশ্য সিলভা পড়ে যাওয়া তিনি ভারসাম্য রাখতে পারেননি। যার কারণে অনিচ্ছাকৃতভাবে হ্যান্ড বল হয়।
তবে, বিরতিতে যাওয়ার আগেই ম্যাচে লিড নেয় ব্রাজিল। (৪৫+৩) মিনিটে আর্থারের সহযোগিতায় গোলটি করেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস। ডি-বক্সের মধ্যে তৈরি হওয়া জটলার মধ্য থেকে দ্রুততার সঙ্গে বল জালে পাঠান তিনি। বিরতির পর ৫৬তম মিনিটে আরেকটি সহজ সুযোগ মিস করে ব্রাজিল।
৭০তম মিনিটে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন গ্যাব্রিয়েল জেসুস। ফলে, দশজনের দলে পরিণত হয় ব্রাজিল। দ্বিতীয়বারের মতো হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয় জেসুসকে। এর আগে ম্যাচের ৩২তম মিনিটে তিনি প্রথমবার হলুদ কার্ড দেখেন। ব্রাজিলের হয়ে জেসুস এই প্রথমবার লাল কার্ড দেখলেন। আর ক্যারিয়ারের দ্বিতীয়। ২০১৬ সালে ক্লাব ফুটবলে পালমেইরার হয়ে একটি ম্যাচে তিনি লাল কার্ড দেখেছিলেন। শনিবার টুর্নামেন্টের তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে লাল কার্ড দেখেছিলেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি ও চিলির গ্যারি মেডেল।
দশজনের দলে পরিণত হওয়ার পরও গোলের দেখা পায় ব্রাজিল। ৯০তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করেন রিচার্লিসন। যার ফলে ৩-১ গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা। এবারের কোপা আমেরিকায় মাত্র একটি গোল হজম করল ব্রাজিল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category