• রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:৩৯ অপরাহ্ন

নোয়াখালী আ. লীগের সম্মেলন ঘিরে জেলাজুড়ে তোরণ-বিলবোর্ড

/ ৪০ বার পঠিত
আপডেট: সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২২

ওবায়দুল কাদেরের নিজ জেলা নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামীকাল (সোমবার)। সম্মেলনকে ঘিরে সড়কে তোরণ, বিলবোর্ড আর ব্যানার ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে পুরো জেলা শহর মাইজদী।

সোমবার (৫ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় জেলা শহর মাইজদীর শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামে সম্মেলন উদ্বোধন করবেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের নিজ জেলা নোয়াখালীর এ সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর একাধিক সদস্যসহ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রভাবশালী নেতাদের বিশেষ অতিথি করা হয়েছে। এদিকে সম্মেলনকে সফল করার জন্য স্থানীয় সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী ও জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন। সম্মেলনকে ঘিরে পুরো জেলায় নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা ও প্রাণ চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

সম্মেলনস্থল জেলা শহর মাইজদীসহ আশপাশের এলাকা বর্ণিল সাজে সেজেছে। তোরণ, বিলবোর্ড আর ব্যানার ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে পুরো জেলা।

নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয়েছিল ২০১৯ সালের ২০ নভেম্বর। শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ওই সম্মেলনে সভাপতি হিসেবে এ এইচ এম খায়রুল আনম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরীর নাম ঘোষণা করা হলেও পরবর্তীতে দীর্ঘদিন ওই কমিটি পূর্ণাঙ্গ না করে এবারের সম্মেলন আয়োজনের জন্য ১৪ মাস আগে আহবায়ক কমিটিকে দায়িত্ব দেওয়া হয়।

জেলা সম্মেলনের আগে ইতোমধ্যে ৯ উপজেলা ও ৭ পৌরসভাসহ সবগুলো ইউনিটের সম্মেলন শেষ হয়েছে। এবারের জেলা সম্মেলনকে সফল করে তুলতে আহবায়ক কমিটির পাশাপাশি জেলা সদরের এমপি একরামুল করিম চৌধুরী কাজ করছেন।

নোয়াখালী-৪ সংসদ সদস্য, একরামুল করিম চৌধুরী জানান, আমি আশা করছি লক্ষাধিক লোকের সমাগম ঘটবে। যেহেতু আমার উপস্থিতির কারণে দলীয় নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ অংশগ্রহণ করবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আমাদের আস্থার ঠিকানা নোয়াখালীর গর্বিত কৃতি সন্তান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আমাকে যে নির্দেশনা দেবেন আমি সেভাবে কাজ করবো। আশা করি তিনি সঠিক সিদ্ধান্ত নেবেন। আগামী দিনে যারা দলকে সুসংঘটিত করে বিরোধী দলের আন্দোলন সংগ্রামের মোকাবেলা করতে পারবে তিনি এমন লোককে জেলার দায়িত্ব দেবেন।


আরো পড়ুন