• মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১১:৫৩ অপরাহ্ন




অর্থবছরের শুরুতে এডিপি বাস্তবায়নের হার কম

/ ১৪ বার পঠিত
আপডেট: মঙ্গলবার, ২২ নভেম্বর, ২০২২
অর্থবছরের শুরুতে এডিপি বাস্তবায়নের হার কম

অর্থবছরের শুরুতে এডিপি বাস্তবায়ন হার কমেছে। গত অর্থবছরের প্রথম চার মাসে সরকারি তহবিল থেকে মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলো ১৯,৫৪৯ কোটি টাকা ব্যয় করেছিল। চলতি অর্থবছরে এই ব্যয় দাঁড়িয়েছে ১৮,১৯০ কোটি টাকায়। প্রথম চার মাস (জুলাই-অক্টোবর) সময় কালের হিসেবে এ হার কমেছে। এ সময় মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলো মোট এডিপি বরাদ্দের ১২.৬৪ শতাংশ অর্থ ব্যয় করেছে। গত অর্থবছরের একই সময়ে ১৩.০৬ শতাংশ এডিপি বরাদ্দকৃত অর্থ ব্যয় হয়েছিল।

বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের (আইএমইডি) হালনাগাদ প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে আসে।

প্রতিবেদনে বলা হয় চলতি অর্থবছরের জুলাই-অক্টোবর সময়ে সরকারি তহবিলের মোট বরাদ্দ থেকে মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলো ব্যয় করছে ১২.২১ শতাংশ অর্থ। এর আগের অর্থবছরের একই সময়ে এ হার ছিল ১৪.২৪ ভাগ। যদিও এই সময়ে বৈদেশিক সহায়তা খাতের বরাদ্দের ব্যয় গত অর্থবছরের তুলনায় এবছর ৩.২৩ শতাংশ বেড়েছে।

গত অর্থবছরের প্রথম চার মাসে বৈদেশিক সহায়তা খাত থেকে ব্যয় হয়েছিল ৯৮৫৭ কোটি টাকা। চলতি অর্থবছরে বৈদেশিক সহায়তা খাত থেকে ব্যয় করা হয়েছে ১৩২৭৭ কোটি টাকা।

সরকারের ব্যয় কমানোর নির্দেশনার কারণে সরকারি তহবিলের বরাদ্দ থেকে অর্থব্যয় কিছুটা কমেছে। অন্যদিকে বৈদেশিক সহায়তাপুষ্ট প্রকল্পগুলোকে সরকার গুরুত্ব দিয়ে বাস্তবায়নের নির্দেশ দেওয়ায় বৈদেশিক সহায়তা খাতের ব্যবহার বেড়েছে বলে মত দেন পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা। অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলায় সরকার উন্নয়ন প্রকল্পের গুরুত্ব বিবেচনায় এ, বি এবং সি ক্যাটাগরিতে ভাগ করেছে। এখনই ব্যয় না করলে তেমন সমস্যা হবে না এমন প্রকল্পগুলোকে রাখা হয়েছে সি ক্যাটাগরিতে। এসব প্রকল্পের অর্থছাড় বন্ধ করে রাখা হয়েছে।





আরো পড়ুন