• শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:১৯ পূর্বাহ্ন




গরু চোরা গিয়াস এখন অপরাধ অপকর্মে অপ্রতিরোধ্য-১

/ ৪১ বার পঠিত
আপডেট: শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২
FB_IMG_1664496593525

সাঈদুর রহমান রিমন, প্রধান সম্পাদকঃ

রাজধানীর দারুসসালামে সংঘবদ্ধ গরু চোরদের সর্দার ছিলেন তিনি, এখন হয়েছেন চাঁদাবাজ, দখলবাজদের মূল হোতা। একাধিক কিশোর গ্যাং লালন পালনের মাধ্যমে অপরাধ অপকর্মের আলাদা সাম্রাজ্য গড়ে তুলেছেন। ইতপূর্বে ছলে বলে কৌশলে টাকার শ্রাদ্ধ ঘটিয়ে যুবলীগের স্থানীয় সভাপতির পদটি হাতিয়ে নিয়েও টিকিয়ে রাখতে পারেননি। বেশুমার অভিযোগ, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গসহ বেপরোয়া চাঁদাবাজির অভিযোগে বহিস্কার হতে হয় তাকে।

সেই গরু চোরা নানা ফন্দিফিকিরে হাজার কোটি টাকার মালিক বনেছেন, আবার তার খায়েশ জেগেছে নেতৃত্ব দখলের। এবার তিনি দারুসসালাম থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী হিসেবে প্রচার প্রচারণা শুরু করেতেই আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র। দলীয় সভাপতি হিসেবে এখনো সমর্থন মেলেনি, কেবল প্রার্থী ঘোষণার দাপটেই বেপরোয়া চাঁদাবাজি, লুটপাট, জায়গা জমি জবর দখলসহ হাজারো অপরাধ অপকর্ম শুরু করেছেন তিনি।

হবু নেতা এরইমধ্যে দারুসসালাম থানার হরিরামপুরে প্রকাশ্য দিবালোকে দোকান, মার্কেটসহ আট কাঠার বাড়ির পুরোটাই জবর দখল করে বাড়ির মূল মালিকদর স্বপরিবারে তাড়িয়ে দিয়েছেন। একই কায়দায় তিনি আরো ৬টি বাড়ি ও ৮/৯টি প্লট কব্জা করে নিয়েছেন। হবু নেতার দখলবাজির অপকর্মে কিশোর গ্যাং ও একশ্রেণীর থানা পুলিশ সক্রিয় ভূমিকায় থাকে বলে কেউ তাদের বাধা দিতে সাহস পায় না। দখল, লুটপাটের ক্ষেত্রে বরাবরই ঢাকা উত্তর আওয়ামীলীগের স্বনামধন্য নেতাদের নাম ধাম ব্যবহার করে ‘গরু চোরা’ হয়ে উঠেছেন আজ অপ্রতিরোধ্য গিয়াস।

তার বাড়ি দখলবাজি, লুটপাটের ভিডিওচিত্র থেকে শুরু করে নানা প্রমানাদি বেরিয়ে এসেছে সরেজমিন অনুসন্ধানে, সেসব জানতে চোখ রাখুন দেশবাংলার পাতায়।





আরো পড়ুন