• শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ১০:৫২ পূর্বাহ্ন
171764904_843966756543169_3638091190458102178_n

চররুহিতা স্ত্রীর স্বীকৃতি চেয়ে কলেজ ছাত্রীর অনশন

/ ২২ বার পঠিত
আপডেট: শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২
চররুহিতা স্ত্রীর স্বীকৃতি চেয়ে কলেজ ছাত্রীর অনশন

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:
লক্ষ্মীপুর জেলাতে স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে স্বামীর বাড়িতে অনশন করেছে কলেজ ছাত্রী ফারজা খাতুন। বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত সদর উপজেলার ৪নং চররুহিতা ইউনিয়নের রসুলগঞ্জ মিঝি বাড়িতে স্বামী মেহেদী হাসান রাফির বসত-ঘরের সামনে এ অনশন করা হয়।

ফারজা সদর উপজেলার ৫নং পার্বতীনগর ইউনিয়ন এর পালেরহাট নন্দলালপুর গ্রামের বেলাল হোসেনের মেয়ে এবং রাফি একই উপজেলার ৪নং চররুহিতা ইউনিয়নের আবুল খায়েরের ছেলে। জানা যায়, রাফি দালাল বাজার ডিগ্রী কলেজে ও ফারজা রায়পুর সরকারি কলেজে এইচএসসি অধ্যায়নরত। দেড় বছর আগে প্রেম পরে এবং ঢাকা কোর্টে বিবাহ করেন। কিছুদিন সংসার করে তারা স্ব স্ব বাড়িতে চলে যায়। এরপর সর্বশেষ দেড় মাস আগে রাফি আবারও ফারজাকে ঢাকা নিয়ে যায়। সেখানেই তাকে রেখে রাফি বাড়িতে চলে আসে এবং ফারজার সাথে সকল যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়।

এতে ফারজানা চিন্তিত হয়ে বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাফির বাড়িতে এসে তার স্বীকৃতি দাবি করে। কিন্তু রাফির পরিবার তাকে মেনে নেয়নি। তাই সে রাফির ঘরে সামনে বসে স্ত্রী’র স্বীকৃতি দাবি করে এবং রাফির সাথে দেখা করতে চায়। পরে বিকালে পুলিশ এসে আদালতের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দিলে ফারজানা চলে যায়।

ফারজা বলেন, রাফি’র সাথে আমার দেড় বছর আগে বিবাহ হয়েছে। সে আমার সাথে সংসারও করেছে। কিন্তু এখন সে আমার সাথে সকল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে রেখেছে। তার বাড়িতে আসলে রাফির পরিবারের লোকজন আমাকে বের করে দিয়েছে। আমি আমার স্বীকৃতি চাই। এ বিষয়ে রাফির পরিবারের সাথে কথা বলতে চাইলে তারা কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।


আরো পড়ুন