• রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১০:৩৪ পূর্বাহ্ন
171764904_843966756543169_3638091190458102178_n

পাহাড়ি মাদক আস্তানায় অভিযান চালিয়ে সিএনজি চোর চক্রের মূল হোতা ও রাহাতকে গ্রেফতার

/ ২৬ বার পঠিত
আপডেট: বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২
bangladesh rab

ডেস্ক রিপোর্টঃ

গত ১৭ এপ্রিল ২০২২ইং তারিখে রাত ২.৪০ মিনিটে সিএনজি চালক মোঃ আলমগীর তার চাচাতো ভাইসহ সিএনজি নিয়ে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানাধীন চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়কের পাকা রাস্তার উপর পৌছালে আসামী রাহাত মিয়া (২০) এবং তার সহযোগী শহিদুল ইসলাম সিএনজি থামিয়ে নাজিরহাট যাবে কিনা জিজ্ঞাসা করে। তখন সিএনজি চালক আলমগীর এবং তার চাচাতো ভাই গাড়ি হতে নেমে একজনের সাথে ভাড়া নিয়ে কথা বলার এক পর্যায়ে আসামী রাহাত মিয়া গাড়িটি দ্রুত ষ্ট্রাট দিয়ে টান দেয় এবং আসামী শহিদুল ইসলাম দ্রুত সিএনজির পিছনের সিটে উঠে সিএনজি নিয়ে নাজিরহাটের দিকে পালিয়ে যায়। তখন সিএনজি চালক আলমগীর হতবিহবল হয়ে সিএনজির পিছনে দৌড়াতে থাকেন । কিছুদূর যাওয়ার পর পুলিশের গাড়ী দেখতে পেয়ে পুলিশ ফোর্সদের নিকট ঘটনার বিস্তারিত বললে পুলিশের টহল ডিউটির গাড়ী দিয়ে ব্যারিকেড দিয়ে চোরাই সিএনজি গাড়ীটি উদ্ধার করে।

উক্ত ঘটনায় সিএনজি চালক মোঃ আলমগীর রাহাত মিয়া এবং তার সহযোগী শহিদুলকে আসামী করে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন যার মামলা নং ২৩(৪)২০২২, ধারা- ৩৭৯/৪১১ পেনাল কোড। পরবর্তীতে তদন্তে উক্ত চুরির ঘটনায় পলাতক আসামী রাহাত মিয়ার সম্পৃক্ততা প্রমাণিত হওয়ায় বিজ্ঞ আদালত তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পযোয়ানা জারী করেন।

র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম সিএনজি চোর চক্রের মূল হোতা ও এজাহারনামীয় ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী রাহাত মিয়াকে গ্রেফতারের জন্যে গোয়েন্দা কার্যক্রম অব্যাহত রাখে। এরই প্রেক্ষেতে চট্টগ্রাম র‍্যাব-৭ জানতে পারে যে, উক্ত ঘটনার এজাহারনামীয় ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী রাহাত মিয়া গ্রেফতার এড়ানোর লক্ষ্যে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানাধীন হাজিরতলী এলাকায় আত্মগোপন করে রয়েছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে গত ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ইং তারিখ ১২.৩০ মিনিটে চট্টগ্রাম র‍্যাব-৭ এর একটি আভিযানিক দল বর্ণিত স্থানে অভিযান পরিচালনা করে আসামী মো: রাহাত মিয়া (২০), পিতা- ছালামত উল্লাহ ওরফে টিপু, সাং- আলীপুর, থানাঃ হাটহাজারী, জেলাঃ চট্টগ্রামকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে গ্রেফতারকৃত আসামীকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বর্ণিত মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী বলে স্বীকার করেন ।

গ্রেফতারকৃত আসামী সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের নিমিত্তে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।


আরো পড়ুন