• মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১২:৫৬ পূর্বাহ্ন
171764904_843966756543169_3638091190458102178_n

সমবায়ের আড়ালে প্রতারনার ফাঁদ গ্রহকের কোটি টাকা নিয়ে হাওয়া

/ ২৩ বার পঠিত
আপডেট: শুক্রবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২২
সমবায়ের আড়ালে প্রতারনার ফাঁদ গ্রহকের কোটি টাকা নিয়ে হাওয়া

মোহাম্মদ জুবাইর, চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ

গ্রহকে কোটি কোটি টাকাসহ রাতারাতি গায়েব এমএলএম ব্যবসায়ী মাসুদ। প্রাইম স্টার সঞ্চয় ও ঋণদান কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ (রেজিঃ নং ১২১২০/১৪) চেয়ারম্যান মাকসুদুর রহমান (মাসুদ)সহ তার চক্র কর্তৃক প্রতারনা ও জালিয়াতির মাধ্যমে গার্মেন্টস শ্রমিক, রিক্সাচালক, খেটে খাওয়া সাধারন শ্রমজীবি ও গৃহিনীসহ বিভিন্ন শ্রেনি পেশার অন্তত ৪ হাজার গ্রাহকদের সঞ্চিত আনুমানিক হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে লাপাত্তা হওয়ায় প্রতারক চক্রের সদস্যদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি ও গ্রহকদের জমাকৃত অর্থ ফিরিয়ে দেওয়ার দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ র‍্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) সকাল ১০ টায় নগরীর চান্দগাঁও থানাধীন মোহরা কাপ্তাই রাস্তার মাথায় প্রতারনার শিকার প্রাইম স্টার সঞ্চয় ও ঋণদান কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ এর ভুক্তভোগী গ্রাহকদের ব্যানারে এই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। 

প্রতারক মাকসুদুর রহমান (মাসুদ) বাঁশখালী উপজেলার কে বি বাজার ৮নং ওয়ার্ডের অংশ চেচুঁরিয়া হাবিব সওদাগরের বাড়ির জামাল আহমদ এর ছেলে। ইপিজেড এলাকার সি.ই.পি জেড মোড়ের  প্রাইম টাওয়ার- ১ ভবনে তিনি সাধারণ শ্রমজীবি মানুষদের বিপুল লাভের প্রলোভন ও আর্থিক সচ্ছলতার মিথ্যা সপ্ন দেখিয়ে গ্রাহকদের কোটি কোটি টাকা নিয়ে গা ঢাকা দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা।

মানববন্ধনে উপস্থিত রোকসানা আক্তার নামক এক গার্মেন্টস কর্মীর অভিযোগ করেন, ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে তার জমানো ৭ লক্ষ টাকা এবং বিভিন্ন জন থেকে নেওয়া আরো ৩ লক্ষ টাকা তিনি এই সমবায়ে জমা দিয়েছেন। স্বামী হারা ৭ বছরের মেয়ে নিয়ে এখন পথে পথে ঘুরছেন বিচারের আশায়। হাওলাতে নেওয়া টাকার জন্য তাকে তাড়া করছেন পাওনাদাররা। তিনি আরো বলেন, এই টাকা না পেলে গলায় দড়ি দেওয়া ছাড়া কোন উপায় থাকবে না। 

তার মত আরো শত শত অসহায় গ্রহক বৃষ্টি উপেক্ষা করে রাস্তায় নেমে আন্দোলন করতে দেখা গিয়েছে। সন্তানদের ভবিষ্যতের জন্য তিলে তিলে জমানো টাকা হারিয়ে পাগলপ্রায় এই খেটে খাওয়া মানুষগুলো।

মানববন্ধনে ‘শ্রমিকেরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বন্ধু মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম অংশ’ বলেন জাতীয়  শ্রমিক লীগ  চাঁন্দগাও থানার সাংগাঠনিক সম্পাদক ও উক্ত মানববন্ধনের সভাপতি মোঃ শাহজাহান। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এই খেটে খাওয়া মানুষদের অধিকার আদায়ের জন্য পাক বাহিনীর সাথে যুদ্ধে নেমেছিলেন। খেটে খাওয়া মানুষগুলোর ভোটে বারবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ  জয়লাভ করছেন। এই অসহায় মানুষগুলোর পরিশ্রমের জমানো টাকা কেউ লুট করতে পারতে পারবে না। সে যত প্রভাবশালীই হোক না কেন। 

তিনি আরো বলেন, জাতীয় শ্রমিকলীগ গরীবের টাকা লুট কারীদের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগীদের সর্বত্র সহায়তা করবে।

‘প্রয়োজনে গামের বদলে রক্ত দিয়ে হলেও আমাদের হকের টাকা এই প্রতারক থেকে উদ্ধার করবো’ বলে মন্তব্য করেন কর্মসূচির সঞ্চালক ও বাংলাদেশ জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী লীগ চট্টগ্রাম মহানগর  চান্দগাঁও থানা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আরিফ হোসেন ভুইঁয়া। তিনি আরো বলেন, গরীবের টাকা মেরে খেয়ে চলে যাবেন এই বাংলাদেশ নেই এখন আর। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শক্ত হাতে দেশের হাল ধরেছেন। তিনি নিজ দলের নেতাদেরও ছাড় দেন না সেখানে এই মাকসুদুর রহমান (মাসুদ) যতবড় রাঘব বোয়াল হোক না কেন তাকে আইনের আওতায় আনা হবে। 

এসময় মানববন্ধনে একাত্মতা প্রকাশ করে সকল ধরনের আইনি ও মানবিক সহায়তা দেওয়ার আশ্বাস দেন সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম বিভাগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাফর। আরো বক্তব্য রাখেন বিভাগীয় সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোর্শেদ আলম। বিভাগীয় সাবেক সদস্য আশরাফ হোসেন রোকন নবগঠিত চট্টগ্রাম মহানগর সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন কমিটির সহ- সভাপতি মিজানুর রহমান বাপ্পি। এসময় তিনি দেশব্যাপী গ্রহক ঠকানো প্রতারক এমএলএম ব্যবসায় সরকারের আরো নজর দারির প্রয়োজন রয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন। তাদের মতে, এমএলএম ব্যবসায়ীরা নামে বেনামে সাধারন শ্রমজীবি মানুষগুলোকে নানান সপ্ন দেখিয়ে গ্রহকদের কষ্টঅর্জিত টাকা লুট করে চলে যায়। এতে তাদের সহায়তা করেন প্রসাশনের কর্তাব্যক্তিরা। 

প্রাইম স্টার সঞ্চয় ও ঋণদান কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ এর অর্থ জমা রাখা প্রতারিক ভুক্তভোগীদের সব ধরনের সহায়তা করা ও বিষয়টি সরকারের নজরে আনার কথা বলেন তারা।


আরো পড়ুন