• রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন
171764904_843966756543169_3638091190458102178_n

যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ার বাজারে পতন

/ ৪৫ বার পঠিত
আপডেট: শনিবার, ২৭ আগস্ট, ২০২২
1661575702-_126462918_4bf240be4ac3c400

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

নিত্যপণ্যের ক্রমবর্ধমান দামে লাগাম টেনে ধরতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে মার্কিন প্রশাসন। তাই তো সুদের হার বাড়িয়ে চলছে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এই হার আরও বাড়ানোর কথা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রধান। আর এতেই মার্কিন শেয়ার বাজারে পতনের দেখা দিয়েছে।

প্রতিবেদনে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যমটি জানায়, সুদের হার বাড়ানো হবে ফেডারেল ব্যাংক প্রধানের এমন খবরে সবশেষ সপ্তাহজুড়ে যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ার বাজারে পতন অব্যাহত রয়েছে।  

ব্যাংকটির চেয়ারম্যান জেরম পাওয়েল বলেছিলেন, মুদ্রাস্ফীতি বন্ধে আমরা সুদের হার বাড়িয়ে যাবো। তার এ বক্তব্য খুব দ্রুত মার্কেটে পৌঁছে যায়। এরপর থেকে যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ার বাজারের সূচকে তিন শতাংশ পতন হয়।

এ দিকে জীবনযাপনে অধিক ব্যয় করতে হচ্ছে মার্কিনিদের। বর্তমানে বিশ্বের বৃহত্তম অর্থনীতির দেশটির মুদ্রাস্ফীতি চার দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছে।

শুক্রবার (২৬ আগস্ট) এক সংবাদ সম্মেলনে পাওয়েল বলেন, ‘আগামী মাসগুলোতে  সুদের হার বাড়াতে পারে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এই হার কিছু সময়ের জন্য রাখতে হতে পারে। মূল্যস্ফীতি হ্রাস করার জন্য সময়ের প্রয়োজন। ’

সুদের হার বাড়ানোর খবরে উদ্বিগ্ন বিনিয়োগকারীরা। তারা বলছে, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হ্রাস পেলে উচ্চ সুদের হার মন্দার সম্ভাবনা বাড়িয়ে তুলবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রধান বলেন, ‘উচ্চ সুদের হার, মন্থর প্রবৃদ্ধি এবং মন্থর শ্রম বাজারের পরিস্থিতি মুদ্রাস্ফীতিকে কমিয়ে আনবে। তবে গৃহস্থালি খরচ ও ব্যবসায়ে খরচ কিছুটা বাড়বে। ’


আরো পড়ুন