• বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৬:২৩ পূর্বাহ্ন




রাশিয়া আর যুদ্ধ থামাতে পারবে না 

/ ৩৫ বার পঠিত
আপডেট: শনিবার, ২৭ আগস্ট, ২০২২
1661582558-Capture

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

কিয়েভ ন্যাটোর আশা ছেড়ে দিলেও এই মুহূর্তে যুদ্ধ থামাতে পারবে না রাশিয়া। এমনটাই জানিয়েছেন সাবেক রুশ প্রেসিডেন্ট এবং ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ মিত্র দিমিত্রি মেদভেদেভ। শুক্রবার (২৬ আগস্ট) টেলিভিশনের এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেছেন তিনি।

ফরাসি টেলিভিশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাশিয়ার নিরাপত্তা কাউন্সিলের ডেপুটি চেয়ারম্যান মেদভেদেভ বলেন, ‘উত্তর আটলান্টিক জোটে (ন্যাটো) অংশগ্রহণ থেকে সরে আসা এখনো অত্যাবশ্যক, কিন্তু শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য এটি আর যথেষ্ট নয়।

লক্ষ্য অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে যাবে রাশিয়া। ’

‘এই অভিযানে কিছু লক্ষ্য আছে রাশিয়ার। এসবের মধ্যে একটি হলো, ইউক্রেনকে নাৎসিমুক্ত করা। যতদিন আমাদের লক্ষ্য পূরণ না হবে, ততদিন অভিযান চলবে,’ যোগ করেন তিনি।

সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য ইউক্রেনের তৎপরতায় ক্ষুব্ধ হয়েছিল রাশিয়া। ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরুর আগে এ বিষয়ে একাধিকবার প্রকাশ্যে অসন্তোষও প্রকাশ করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।  

মূলত ন্যাটোকে ঘিরে দ্বন্দ্বের জেরে সীমান্তে আড়াই মাস সেনা মোতায়েন রাখার পর গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে বিশেষ সামরিক অভিযান শুরুর ঘোষণা দেন পুতিন। এই ঘোষণার ‍দুদিন আগে ইউক্রেনের রুশ বিচ্ছিন্নতাবাদী নিয়ন্ত্রিত দুই অঞ্চল দনেতস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেন তিনি।

ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ শুরুর পর থেকে কিয়েভকে দফায় দফায় সামরিক সহায়তা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো। এসব সহায়তার মধ্যে হিমার্স ক্ষেপণাস্ত্র ও অত্যাধুনিক রকেট সিস্টেমও রয়েছে। রাশিয়া আপত্তি সত্ত্বেহ ইউক্রেনে সামরিক সহায়তা দিয়ে আসছে পশ্চিমারা।

যুদ্ধাস্ত্র নিয়ে মেদভেদে বলেন, ‘মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে এই মুহূর্তে বেশি চিন্তিত নয় রাশিয়া। ৭০ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম— এমন রেঞ্জের ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে আমাদের দুশ্চিন্তা নেই। কিন্তু ইউক্রেনকে যদি এমন ক্ষেপণাস্ত্র দেওয়া হয়, যা ৩০০-৪০০ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম, সেক্ষেত্রে অবশ্য পরিস্থিতি ভিন্ন হবে। ’





আরো পড়ুন