• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪০ অপরাহ্ন

বাগমারার কলেজ ছাত্রী কে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ

Reporter Name / ১৪২ Time View
Update : শনিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৯

রুস্তম আলী শায়ের, বাগমারা প্রতিনিধিঃ বাগমারার কলেজ ছাত্রী কে ধর্ষনের পর শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার গোয়ালকান্দি ইউনিয়নের সমষপাড়া গ্রামের রশিদ উদ্দিন এর বড় মেয়ে সাধনপুর স্কুল এন্ড কলেজ এর এইচএসসি ১ম বর্ষের ছাত্রী তামান্না আক্তার টিয়া (১৭) কে ধর্ষনের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছে নিহত টিয়ার পরিবার। নিহত টিয়ার বাড়ির থেকে ৫শ গজ দূরে নলডাঙ্গা উপজেলার সরকুতিয়া দক্ষিন পাড়ার আম বাগান থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করে নলডাঙ্গা থানা পুলিশ।

নিহতের বাবা রশিদ উদ্দিন বলেন শুক্রবার রাত ১১টার দিকে সাধনপুরের খিদিরপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক এর ছেলে মোঃ শান্ত ইসলাম (২১) বাড়িতে এসে হুমকির মুখে তাঁর মেয়ে কে তুলে নিয়ে যায়। সকালে ঝুলন্ত অবস্থায় মেয়ের লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা তার বাড়িতে খবর দেয়। মেয়ের মা নিলুফা সাংবাদিকদের বলেন, টিয়া ও শান্ত একই কলেজে পড়তো।কলেজে গেলে শান্ত টিয়াকে মাঝে মাঝে ইভটিজিং করতো বলেও জানান। এ ব্যাপারে নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) উজ্জল হোসেন বলেন,শরীরে আঘাতের চিন্হ নেই তবে আসল ঘটনা জানা যাবে লাশ ময়না তদন্তের পর।

তবে স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলছেন ঝুলন্ত অবস্থায় লাশের পা সম্পূর্ন মাটিতে ছিলো।এবং লাশ নামানোর সময় সাহায্যকারী স্থানীয় মহিলারা নিহতের যৌনাঙ্গে বেশ ক্ষত দেখতে পেয়েছেন,তাঁদের ধারনা ধর্ষনের পর হত্যা করা হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নিহতের এক স্বজন জানান ইতোমধ্যেই ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে প্রভাবশালী মহল। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি এবং লাশ ঘটনাস্থালেই রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category