• বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:০৪ পূর্বাহ্ন




তুরস্কের সামরিক বাহিনীতে প্রথম নারী জেনারেল

/ ৫৫ বার পঠিত
আপডেট: মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট, ২০২২

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

তুরস্কের সামরিক বাহিনীতে প্রথম একজন নারীকে জেনারেল পদে নিয়োগ করা হয়েছে। তুরস্কের ইতিহাসে প্রথম ওই নারী জেনারেলের নাম ওজলেম ইলমাজ। চলতি সপ্তাহে তাকে এই পদে নিয়োগ দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে তুর্কি সংবাদমাধ্যম টিআরটি ওয়ার্ল্ড। শনিবার দেশটির অফিসিয়াল গেজেট জানিয়েছে, তুর্কি সেনাবাহিনীর প্রথম নারী জেনারেল হিসেবে ওজলেম ইলমাজকে নিয়োগ করা হয়েছে।

অন্যদিকে আরেক তুর্কি সংবাদমাধ্যম ডেইলি সাবাহ জানিয়েছে, গত শনিবার ওজলেম ইলমাজকে তুরস্কের সামরিক বাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদে উন্নীত করা হয়। এর আগে তিনি দেশটির সেনাবাহিনীর সিনিয়র কর্নেল পদে কর্মরত ছিলেন।

সংবাদমাধ্যমটি আরও জানিয়েছে, পদোন্নতি পাওয়ার পর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ওজলেম ইলমাজ এখন থেকে রাজধানী আঙ্কারায় অবস্থিত জেন্ডারমেরি অ্যান্ড কোস্ট গার্ড একাডেমির ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

ওজলেম ইলমাজ ছাড়াও চলতি সপ্তাহে তুরস্কের সামরিক বাহিনীর দুইজন লেফটেন্যান্ট জেনারেল, ১৬ জন মেজর জেনারেল এবং ১৩ জন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হিসেবে পদোন্নতি পেয়েছেন। এছাড়া জেনারেল আরিফ সেতিন জেন্ডারমেরি জেনারেল কমান্ডের প্রধান হিসাবে দায়িত্বপালন অব্যাহত রাখবেন।

এদিকে তুর্কি বার্তাসংস্থা আনাদোলু এজেন্সির বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম সিয়াসাত জানিয়েছে, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের সিদ্ধান্তে ওজলেম ইলমাজকে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদে নিয়োগ দেওয়া হয়।

এর আগে, মেজর জেনারেল ওজলেম ইলমাজ গার্হস্থ্য সহিংসতা মোকাবিলা করার জন্য সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তরের প্রধান এবং জেন্ডারমেরি জেনারেল কমান্ডের শিশু বিভাগের প্রধান ছিলেন।

সিয়াসাত বলছে, গার্হস্থ্য সহিংসতা মোকাবিলা এবং শিশুদের সহায়তা করার জন্য বেশ কয়েকটি গ্রামীণ অঞ্চলে দল নিয়ে দায়িত্ব পালন করার পর তুরস্কের প্রথম মেজর জেনারেলের পদ লাভ করেছিলেন ওজলেম। তার ওই কাজের মাধ্যমে নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতা প্রতিরোধে ব্যাপক প্রচেষ্টা চালিয়েছিলেন ওজলেম।

উল্লেখ্য, ১৯৭৬ সালে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে জন্মগ্রহণ করেন ওজলেম ইলমাজ। এরপর ১৯৯৭ সালে লেফটেন্যান্ট পদে সামরিক একাডেমি থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেন তিনি।





আরো পড়ুন