• বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৭:৫০ পূর্বাহ্ন
171764904_843966756543169_3638091190458102178_n

দলিলের সম্পত্তিতে জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ

মোঃ ইমরান ইসলাম, নিয়ামতপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি / ৪৮ বার পঠিত
আপডেট: শুক্রবার, ১২ আগস্ট, ২০২২
ফসলি_জমি_সংবাদ_টিভি

নওগাঁর নিয়ামতপুরে কবুলীয়ত দলিলের সম্পত্তিতে জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ রয়েছে। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার চন্দননগর ইউনিয়নের ২২ নং মৌজার সাবেক দাগের ১৫৩৯ হাল দাগের ২৯৩৩ সরকার বাহাদুরের ১ নং খাস খতিয়ানের তালিকাভুক্ত ৫.৪৮ একর সম্পতি।

উক্ত সম্পতির মধ্যে সাবেক ১৫৩৯ দাগের ১ একর জোত ৫৩৮/৭৮ বন্দোবস্তে বুধুরিয়া গ্রামের মৃত জহির মন্ডলের ছেলে আসকান আলীকে চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত দেওয়া হয়। সে সময় বন্দোবস্তে গ্রহীতা বরাবর একটি কবুলীয়ত দলিল হয়। উক্ত কবুলীয়ত দলিলে কয়েকটি শর্ত দেওয়া হয়। কিন্তু পরবর্তীতে শর্ত ভেঙ্গে ১৯৭৯ সালে ২২৯৭ নাম্বার দলিলে বগুড়া জেলার খেতলাল থানার বিনাই গ্রামের মৃত ফিরোজ মন্ডলের ছেলে মোবারক মন্ডলের নামে কবলা দলিল হয়।

পরবর্তীতে ঐ সম্পত্তি ৯০৮ নং খারিজ মূলে ১৯৮৬ সালে ০৯৪৭ নাম্বার দলিলে বুধরিয়া গ্রামের তছের মোল্ল্যার ছেলে শরীফ মোল্ল্যা উক্ত সম্পত্তি কবুলীয়ত দলিলে মূলে ১৯৮৬ সাল থেকে ২০১০ সাল‌ পর্যন্ত ভোগ দখল করে আসছিলেন। কিন্তু হঠাৎ চন্দননগর ইউনিয়নের বধুরিয়া গ্রামের ইয়ার মোহাম্মদের ছেলে আয়নাল আলী ক্রয়সূত্রে উক্ত ১ একর সম্পতিতে ভোগদখল করছে।

শরীফ মোল্ল্যা বলেন, আমি ১৯৮৬ সাল থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত ঐ ১ একর জমিতে আবাদ করে আসছি। এখন ঐ সম্পতি আয়নাল জোরপূর্বক দখল করছে। আমরা গরীব মানুষ কোথাও গিয়ে কোন সঠিক বিচার পাচ্ছি না। আয়নাল আলী বলেন, আমি মোবারক মন্ডলের কাছ হতে উক্ত ১ একর সম্পতি ক্রয় করেছি। ক্রয় সূত্রে আমি উক্ত জমির মালিক।


আরো পড়ুন