• রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১০:১৯ পূর্বাহ্ন
171764904_843966756543169_3638091190458102178_n

শ্বেতপত্রে তাইওয়ানকে নিয়ে যা চীন ভাবছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৫২ বার পঠিত
আপডেট: বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট, ২০২২
tione_china_songbad_TV

তুমুল উত্তেজনাকর পরিস্থিতির মধ্যে বুধবার (১০ আগস্ট) চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রকাশ করেন। তাইওয়ানকে নিয়ে একটি শ্বেতপত্র প্রকাশ করেছে চীনা সরকার। নতুন যুগে তাইওয়ান সমস্যা ও চীনের পুনর্মিলন, শীর্ষক শ্বেতপত্রটিতে তাইওয়ানকে নিজেদের ভূখণ্ড উল্লেখ করেছে তারা।

এমনকি লক্ষ্য অর্জনে বল প্রয়োগের কথাও জানিয়েছে তারা।ওই শ্বেতপত্রে বলা হয়, আমরা এক চীন এবং তাইওয়ান চীনের অংশ। এটি ইতিহাস ও আইন দিয়ে সমর্থিত একটি অবিসংবাদিত সত্য। তাইওয়ান কখনই একটি রাষ্ট্র ছিল না। চীনের অংশ হিসেবে এর অবস্থানও অপরিবর্তনীয়। আমরা অত্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে শান্তিপূর্ণ উপায়ে আমাদের লক্ষ্য অর্জনের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালাবো কিন্তু বল প্রয়োগের বিষয়টি আমরা পরিত্যাগ করব না। প্রয়োজন হলে আমরা এ পথ অনুসরণ করব।

এতে আরও বলা হয়, জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের রেজুলেশন ২৭৫৮ হল একটি রাজনৈতিক দলিল, যা এক চীননীতিকে অন্তর্ভুক্ত করে। ফলে এর আইনি কর্তৃত্বে সন্দেহ প্রকাশ করার কোনো উপায় নেই। এটি বিশ্বব্যাপীও স্বীকৃত হয়েছে।
সবশেষ ২০০০ সালে তাইওয়ান ইস্যুতে চীন শ্বেতপত্র ইস্যু করেছিল। গত শতকের নব্বইয়ের দশকের শেষ দিকে কর্তৃত্ববাদ থেকে বেরিয়ে প্রাণবন্ত গণতন্ত্রে নিজেকে রূপান্তরিত করে তাইওয়ান।

 


আরো পড়ুন