• শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ০৮:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম
কলম যুদ্ধে নামছে দৈনিক “দেশবাংলা”র এক ঝাঁক পেশাদার সংবাদকর্মী একতা মানবিক সোসাইটির পক্ষ থেকে সিলেট বাসীর মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ সাপাহারে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে কৃষি উপকরণ বিতরণ পাঁচবিবি পৌর নির্বাচনের বাছাই পর্বে প্রার্থীর সমর্থককে জোরপূর্বক উঠিয়ে নেওয়ায় প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন সাঁথিয়া ভূমি অফিসের ময়লার ভাগাড়ে প্রধানমন্ত্রীর ছবি মির্জাগঞ্জে মাহিন্দ্রা ট্রাক্টর উল্টে চালক নিহত ময়মনসিংহ পিবিআই এর অভিযানে অটোরিক্সাসহ চোরচক্র গ্রেফতার সাপাহারে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে কৃষি উপকরণ বিতরণ নড়াইলে পিকআপের ধাক্কায় ইজিবাইক যাত্রীর মৃত্যু; পিকআপসহ চালক আটক করেছে পুলিশ নড়াইলে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে একজনকে কুপিয়ে খুন, আহত ৫; অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন

মঠবাড়িয়ায় বাল্যবিহ প্রতিরোধ করে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, কাজীর লাইসেন্স বাতিলের আবেদন!!

Reporter Name / ১৯৭ Time View
Update : মঙ্গলবার, ১ অক্টোবর, ২০১৯

বাদল বেপারী , স্টাফ রিপোর্টার:-
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় প্রশাসনের হস্থক্ষেপে বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষা পেল দশম শ্রেণির স্কুল ছাত্রী ফারাজানা (১৫)। উপজেলার সবুজনগর মহল্লার কনের বাড়িতে সোমবার বিকালে এ বাল্য বিয়ের পন্ড হওয়ার ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়দের সূত্রে জানাগেছে, মঠবাড়িয়ড়িয়া পৌর শহরের সবুজনগর মহল্লার আলমগীর হোসেনের মেয়ে ১০ম শ্রেণিতে পড়ুয়া স্কুল ছাত্রী ফারজানা আকতারের (১৫) সাথে স্থানীয় ঘটিচোরা গ্রামের মোকসেদ আলীর ছেলে চট্রগামে একটি বে-সরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকুরীরত জসীম উদ্দিন (২৮) এর সাথে বিয়ের আয়োজন করে দুই পরিবার। সোমবার বিকালে বিয়ের ধুমধাম চলছিলো কনের বাড়িতে। বর জসীম উদ্দিন (২৮) আত্মীয় স্বজন নিয়ে বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত। মেহমানদের জন্য রান্নাবান্নার আয়োজনও শেষ। ভূক্তভোগি স্কুল ছাত্রী রাজি না থাকলেও বর ও কনের পরিবারের সম্মতিতেই হচ্ছে বিয়ের আয়োজন। স্থানীয়রা বাল্যবিয়ের বিষয়টি গোপনে উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করেন। বিয়ের কাজি বিয়ের কাজ শুরু করেন ঠিক এমন সময়ে বিয়েবাড়িতে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রিপন বিশ^াস, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মনিকা আক্তার ও উন্নয়ন কর্মী ইসরাত জাহান মমতাজ পুলিশ নিয়ে ওই বাড়িতে হাজির হন। এসময় প্রশাসনের উপিস্থিতি টের পেয়ে বিয়ের কাজি সটকে পড়েন। পরে ভ্রাম্যমান আদলতে কনে অপ্রাপ্ত বয়স হওয়ার অপরাধে বর মো. জসীম উদ্দিনকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন। একই সাথে বাল্যবিয়ের অনুষ্ঠান আয়োজনের অপরাধে বরের বাবা মোকসেদ আলীকে ১০ হাজার টাকা ও কনের বাবা আলমগীর হোসেন ঘরামীকে ১০ হাজার টাকা মোট ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেন। একই সাথে বরের বাবা ও কনের বাবা ও মার কাছ থেকে মেয়ের ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না-দেওয়ার শর্তে মুচলেকা নেওয়া হয়। পরে বাল্য বিয়ে পড়ানোর দায়ে সংশ্লিষ্ট কাজির লাইসেন্স বাতিলের সুপারিশ করা হয়।
এ বিষেয় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রিপন বিশ^াস বাল্য বিয়ের পন্ড হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, দুই পরিবারকে অর্থদন্ডাদেশ দিয়ে সংশ্লিস্ট কাজির লাইসেন্স বাতিলের সুপারিশ করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category