• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০২:১৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম
২দিন আটকে রেখে টাকা না পেয়ে পিটিয়ে হাত ভেঙে কোর্টে চালান ওসিসহ ৪জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ; এলাকাবাসীর মানববন্ধন জয়পুরহাটে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষ্যে জেলা পর্যায়ে সাংবাদিকদের ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন ২০২২ উপলক্ষে সাংবাদিকদের ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা অনুষ্ঠিত যাত্রাবাড়ী থেকে ২২ কেজি গাঁজাসহ ০৪ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার!  নবাবগঞ্জের ভাইয়ের হাতে ভাই হত্যা মামলার প্রধান আসামী জাহাঙ্গীর কবিরাজ গ্রেফতার ময়মনসিংহে হামলার শিকার কবি সাংবাদিক শরৎ সেলিম ,থানায় অভিযোগ জয়পুরহাটে ধানকাটাকে কেন্দ্র করে কুপিয়ে যখম  প্রতিপক্ষ আতাইকুলা থানায় ৬ লক্ষ পিচ শলাকা নকল আকিজ বিড়ির পিকআপসহ গাড়ী আটক- ৩ কেরাণীগঞ্জের চাঞ্চল্যকর স্বামীর হাতে প্রবাসী স্ত্রী হত্যা মামলার আসামী স্বামী নুরুল কালির বাজারে চেয়ারম্যান ইলেকট্রনিক্স পয়েন্ট ও চেয়ারম্যান সুপার সপের রেফেল ড্র অনুষ্ঠিত

মনিবের প্রাণ বাঁচাতে জীবন দিল কুকুর

অনলাইন ডেস্ক / ৩৪ Time View
Update : শনিবার, ১৯ মার্চ, ২০২২

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরের একটি আলু খেতের পাশে মনিবকে রক্ষায় জীবন হারিয়েছে একটি বিদেশি জাতের কুকুর। বৃহস্পতিবার (১৭ মার্চ) উপজেলার বলরামনগর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, সেলিম রেজা নামে এক ব্যক্তি তার নিজের আলুখেতের পাশে পাতা একটি চৌকিতে শুয়ে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। তার সাথে ছিল বিদেশি জাতের একটি পোষা কুকুর। একপর্যায়ে সেলিমের দিকে একটি বিষধর সাপ ছুটে আসছিল। পরে মুনিবকে রক্ষায় কুকুরটি সাপের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। সাপ ও কুকুরের মধ্যে পাল্টাপাল্টি আক্রমণ ও কামড়াকামড়ির ঘটনা ঘটে। শেষ পর্যন্ত সাপ ও কুকুর উভয়ই মারা যায়। তবে রক্ষা পান কুকুরের মালিক সেলিম রেজা।

এ ঘটনায় স্থানীয়রা বলছেন, কুকুর প্রভু ভক্ত, তা আরও একবার প্রমাণিত হল। নিজের জীবন দিয়ে মনিবকে বাঁচিয়েছে কুকুর। মারামারিতে সাপ-কুকুরের মৃত্যুর খবরে কৌতূহলী মানুষ তা দেখতে এলাকায় ভিড় জমায়।

 

এ ব্যাপারে কৃষক সেলিম রেজা বলেন, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তিনি ও তার ছোট ভাই আলিম রেজা আলু খেত পাহারা দিচ্ছিলেন। জমির পাশে একটি চৌকিতে শুয়ে বিশ্রাম নেওয়ার সময় ঘটনাটি ঘটে।  তিনি জানান, জার্মান শেফার্ড জাতের কুকুরটি কিনতে তিনি ১ লাখ টাকা খরচ করেছেন। তার নাম টেডি। কুকুরটিকে ২০১৯ সালে বাংলাদেশে আনা হয়। টেডির কারণে খেত পাহারা দিতে কোনো শ্রমিকের দরকার হতো না। এর আগেও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তার পরিবারের সদস্যদের নিরাপদে রেখেছিল টেডি। টেডির মৃত্যুতে তিনি ভেঙে পড়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category