• বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:৫০ পূর্বাহ্ন




তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইকবাল হোসেনের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় হাসপাতালে সংযোজন হচ্ছে ১২ টি এসি।।

/ ২০৬ বার পঠিত
আপডেট: রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার জহর হাসান সাগর:- সাতক্ষীরার তালা হাপাতালের অসুস্থ্য রোগীদের এসি’র ব্যবস্থা না করে নিজের কক্ষে এসি চালাবেন না, তালা উপজেলার নির্বাহী অফিসার ইকবাল হোসেন। তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের গরমে দূর্বিসহ দূর্ভোগের চিত্র দেখে,তাদের কষ্ট উপলব্ধি করে তালা উপজেলা নির্বাহীঅফিসার ইকবাল হোসেনের ফেইসবুক আইডিতে ১২ সেপ্টেম্বর রাত ১০ টায় দেয়া এক স্ট্যাটাসের পর এবার সত্যিই তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সংযোজন হচ্ছে এসি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় হাসপাতালটিতে এক সাথে সংযোজন হচ্ছে আজ ১২ টি এসি। শনিবার রাতে নির্ভরযোগ্য একাধিক সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

সর্বশেষ তার স্থান হাসপাতালটির অপারেশনের রোগীদের গরমে দূর্ভোগ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া স্ট্যাটাসটি নাড়া দেয় তালাবাসীকে। বিষয়টিও বেশ গুরুত্বের সাথে তুলে ধরে জনপ্রিয় অনলাইনটি। বিভিন্নজন বিভিন্নভাবে এতে প্রতিক্রিয়াও ব্যক্ত করে।

শুধু স্ট্যাটাসের মধ্যে নিজেকে সম্পৃক্ত না রেখে এবার সত্যিই যেন অসাধ্যকে সাধন করে দেখাতে যাচ্ছেন ইউএনও ইকবাল হোসেন। সূত্র দাবি করেছে,তিনি এসি নিয়ে ঢাকা থেকে এই মূহুর্তে তালার পথে রয়েছেন। আজ রবিবার সকাল নাগাদ এসিগুলো পৌছানো মাত্রই তা সংযোজিত হবে তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দেওয়া হৃদয়গ্রাহী স্ট্যটাসটি হুবহু তুলে ধরা হল:
নিজেকে অপরাধী মনে হচ্ছে। এসি রুমের মধ্যে থাকতে ভালো লাগছেনা। ফ্যাক্ট: হাসপাতালে অপারেশনের রোগী গরমের সাথে লড়ছে। রাতের তালা আমাকে বদলে দাও। কাল থেকে নিজের রুমের এসি বন্ধ থাকবে। রোগীদের ব্যবস্থা না করে ব্যবহার করবোনা। দয়া করে রুমে ঢুকে কেউ এ সি চালাতে বলবেন না। হাসপাতালের এসি হতেই হবে। এসি হবেই। কোনও ধূলো থাকবেনা। জুতো বাইরে থাকবে। আর বাথরুম থেকে গন্ধ নয় ঘ্রান আসুক।





আরো পড়ুন